SEND FEEDBACK

English
Bengali

রহস্যময় গহ্বর, নাকি নরকের দ্বার? গিলে খাচ্ছে গোটা অরণ্য

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | মার্চ ৫, ২০১৭
Share it on
এই বিশালাকার গহ্বরটিকে স্থানীয় মানুষ ‘নরকের দরজা’ হিসেবেই জানেন। অনেকেই দাবি করেন, ‘নরকের দরজা’ দিয়ে অনেক সময়েই উঠে আসে অপ্রাকৃত শব্দ।

গত ২ লক্ষ বছরের ভূতত্ত্বের ইতিহাসে এই গহ্বর একটা বিস্ময় হিসেবেই থেকে গিয়েছে। এমনটাই দাবি করেন ভূ-বিজ্ঞানীরা। সাইবেরিয়ার এই ৩০০ফিট গভীর গহ্বরটির পরিচিতি ‘বাটাগাইকা গহ্বর’ নামে। এবং এই বিশালাকার গহ্বরটিকে স্থানীয় মানুষ ‘নরকের দরজা’ হিসেবেই জানেন।

আরও পড়ুন... 

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু, তার থেকেই পাওয়া যেতে পারে সৃষ্টির রহস্য 

পৃথিবীর মতোই আরও সাত গ্রহ! কোথায় এদের বাস? কী বলছে নাসা?

প্রতি বছর বাটাগাইকা গহ্বর ৩০ থেকে ১০০ ফিট করে বাড়ছে আয়তনে। এবং সেই সঙ্গে সন্নিহিত অরণ্যকেও সে গিলে খাচ্ছে। ফলে দ্রুত বদলে যাচ্ছে উত্তর ইয়াকুতিয়া অঞ্চলের ভৌগোলিক চালচিত্র। সম্প্রতি ‘কোয়াটেরনারি রিসার্চ’ নামে এক জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা নিবন্ধে দেখানো হয়েছে, এই গহ্বরের গভীরের বিভিন্ন ভূতাত্ত্বিক স্তর উন্মুক্ত হওয়ায় বিভিন্ন বিচিত্র তথ্য উঠে আসছে। গহ্বরের গভীরে প্রাচীন বৃক্ষের অবশেষ থেকে অনুমান করা হচ্ছে, একটা ঘন অরণ্য ছিল এই অঞ্চলে, পরে তাকে এই গহ্বর গ্রাস করেছে। সাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক জুলিয়ান মর্টন জানিয়েছেন, ভূতাত্ত্বিক উতিহাসের এমন নিয়ত ও কালানুক্রমিক রেকর্ড বিশ্বে আর নেই।


বাটাগাইকা গহ্বরের উপগ্রহ চিত্র। ছবি: টুইটার

এই মুহূর্তে গহ্বরটি আধ মাইল লম্বা ১৯৬০-এর দশকে জঙ্গল সাফ করতে গিয়েই এই গহ্বর সৃষ্টি হয়েছিল। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেই দাবি করেন, ‘নরকের দরজা’ দিয়ে অনেক সময়েই উঠে আসে অপ্রাকৃত শব্দ। বিজ্ঞানীদের মতে, সেগুলি মাটির চাঙড় ভেঙে পড়ার শব্দ ছাড়া অন্য কিছুই নয়।

Batagaika Crater Siberia Geology Hellmouth
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -