SEND FEEDBACK

English
Bengali

চোখের যত্ন নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন | মার্চ ১২, ২০১৭
Share it on
হোলিতে সতর্ক না থাকলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে আপনার চোখ। আর বাজারচলতি সিন্থেটিক রং চোখে গেলে তো কথাই নেই! টক্সিক উপাদানগুলো রেটিনায় পৌঁছে গেলে রীতিমতো সংক্রমণ ঘটতে পারে। ব্যবস্থা না নিলে কিন্তু ক্ষতি আরও মারাত্মক পর্যায়ে পৌঁছতে পারে। রইল ‘ওবেলা’র বিধানে কী কী করা উচিত।

১। চোখে গুঁড়ো আবির কিংবা রং গেলে বার বার ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিতে থাকুন। পিউরিফায়েড ওয়াটার ব্যবহার করবেন। শুকনো আবিরেও কিন্তু চকগুঁড়ো, সিলিকা, কাচের গুঁড়ো কিংবা অভ্র থাকতে পারে। ফলে হোলি খেলার কয়েকদিন পর পর্যন্তও চোখের যত্ন নিতে ভুলবেন না। দরকার পড়লে সঙ্গে সঙ্গে আই স্পেশ্যালিস্টের শরণাপন্ন হন। বিপ়দ কেটে যাবে।

২। হোলির পরের কয়েকদিনও খেয়াল রাখবেন কোনও ইরিটেশন হচ্ছে কি না। রোদে বেরোলে সব সময় রোদচশমা ব্যবহার করবেন। না হলে সংক্রমণ বাড়বে। তাছাড়া চোখে ইরিটেশন হলে চোখ ঢেকে বেরনোই বুদ্ধিমানের কাজ। ধুলোবালিতে চোখের আরও ক্ষতি হওয়ার রাস্তা থাকবে না।

৩। রাস্তায় বেরোলে টুপি পরতেও ভুলবেন না। আসলে হোলির দিনটাও টুপি পরেই রং খেলা উচিত। চড়া রোদের হাত থেকে মাথা ও চোখ— দু’টোই বাঁচবে। কিন্তু কোনওরকম সংক্রমণ না হয়ে থাকলেও টুপি কিন্তু ছাড়বেন না! যতরকম ভাবে সুরক্ষার গ্যারান্টি পাওয়া যায় আর কী!

৪। পুরু করে কোল্ড ক্রিম বা সুদিং অয়েল লাগান। বিশেষ করে চোখের চারপাশে। ডাক্তারের প্রেসক্রাইব করা মেডিকেটেড ক্রিমও লাগাতে পারেন। চোখের ভিতরে রং গেলেই বেশি চিন্তা হয়। কিন্তু চোখের চারপাশের ত্বক একটু বেশিই সেনসিটিভ। ঘষে ঘষে রং তুলতে গিয়ে ড্যামেজড হলে তাকেও যত্নে রাখতে হবে তো!

৫। রং খেলতে গিয়ে কনট্যাক্ট লেন্স না   পরে চশমা পরাই ভাল। ভুল করেও যদি কনট্যাক্ট লেন্সে রং ঢুকে যায়, তাহলে সেটা আর ব্যবহার না করাই উচিত। কারণ কনট্যাক্ট লেন্সে হাইগ্রোস্কোপিক উপাদান থাকে, যেগুলো রঙের সলিউশন শুষে নেয়। ফলে চোখের সরাসরি ক্ষতি হওয়ার প্রচুর সম্ভাবনা থাকে। অতএব সাবধান!

Eye Colour Holi
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -