SEND FEEDBACK

English
Bengali

স্টেশনে ট্রেনের টিকিটের লম্বা লাইন? এবার তব‌ে টিকিট কাটতে চলে যান ব্যাঙ্কে

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৭
Share it on
স্টেশনের টিকিট কাউন্টার ছাড়াও অন্যত্র ট্রেনের টিকিট বিক্রির ঘটনা অবশ্য এই দেশে এই প্রথম নয়। জামশেদপুরের ম্যাঙ্গো পোস্ট অফিস থেকে বিগত পাঁচ বছর ধরে ট্রেনের জেনারেল টিকিট বিক্রি হচ্ছে।

ট্রেনের টিকিটকে আরও সুলভ করার লক্ষ্যে একটা বড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে ভারতীয় রেল। যদি সব ঠিকঠাক চলে, তবে আর কিছু দিনের মধ্যেই ব্যাঙ্ক থেকে ট্রেনের জেনারেল টিকিট বিক্রি শুরু হবে। 

রেলের তরফে ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্কের সঙ্গে এই বিষয়ে কথাবার্তা শুরু হয়েছিল ২০১৬-র অগস্ট মাসেই। পরিকল্পনাটিকে বাস্তবায়িত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপও নেওয়া শুরু হয়েছিল। 

এ বার সেই প্রোজেক্ট প্রস্তুতি পর্বের একেবারে শেষ পর্যায়ে পৌঁছেছে বলে শোনা যাচ্ছে। আগামী এপ্রিল মাস থেকেই ব্যাঙ্কে রেল টিকিট বিক্রি শুরু হবে বলে খবর। 

বিষয়টিকে বাস্তবায়িত করার লক্ষ্যে দুই ধরনের পরিকল্পনা রয়েছে ভারতীয় রেলের। এক, ব্যাঙ্ক-চত্বরেই একটি স্বনিয়ন্ত্রিত রেল টিকিট ভেন্ডিং মেশিন বসানো; অথবা দুই, এটিএম-গুলির সঙ্গে রেল টিকিট ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেমকে সংযুক্ত করা। 

রেলের তরফে জানানো হয়েছে, যাত্রী সাধারণের সুবিধার্থেই এই ব্যবস্থার কথা ভাবা হয়েছে। এতে রেল স্টেশনের টিকিট কাউন্টারের সামনে রোজকার লম্বা লাইন অনেকখানি হ্রাস পাবে বলেই আশা করা হচ্ছে। 

স্টেশনের টিকিট কাউন্টার ছাড়াও অন্যত্র ট্রেনের টিকিট বিক্রির ঘটনা অবশ্য এই দেশে এই প্রথম নয়। জামশেদপুরের ম্যাঙ্গো পোস্ট অফিস থেকে বিগত পাঁচ বছর ধরে ট্রেনের জেনারেল টিকিট বিক্রি হচ্ছে। টাটা নগরের রেলওয়ে স্টেশনে আবার দু’টি কোএটিভিএম স্থাপন করা হয়েছে, যেখান থেকে যাত্রীরা টাকা তোলার পাশাপাশি ট্রেনের জেনারেল টিকিটও কিনে নিতে পারেন। 

Indian Railway SBI
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -