SEND FEEDBACK

English
Bengali

বিজেপি-তৃণমূল আঁতাত স্পষ্ট, মমতার নির্দেশেই! বিধায়কের দাবিতে জল্পনা তুঙ্গে

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | মার্চ ২০, ২০১৭
Share it on
মমতা বরাবরই মোদী ও বিজেপির বিরোধিতা করে এসেছেন। কোনও আঁতাতের জল্পনাকে মিথ্যে বলেছেন। কিন্তু সোমবারের ঘটনা অবাক করে দেবে সবাইকে।

মণিপুর বিধানসভায় বিজেপি সরকারের আস্থা ভোটে বুক চিতিয়ে বিজেপিকেই সমর্থন করে বসলেন তৃণমূলের একমাত্র বিধায়ক টি বীরেন্দ্র সিংহ। বলে দিলেন দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করেই তিনি বিজেপির নবনিযুক্ত মুখ্যমন্ত্রী বীরেন সিংহকে সমর্থন করেছেন।

৬০ সদস্যের বিধানসভায় ২১ জন বিধায়ক নিয়েও নাগা পিপলস্ ফ্রন্ট, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি, লোকজনশক্তি পার্টি-সহ একজন নির্দল ও একজন কংগ্রেস বিধায়কের সমর্থন নিয়ে সরকার গড়েছে বিজেপি। তারা আস্থা ভোটেও জিতে যায়। সেখানে তৃণমূলের বিধায়কও নতুন বিজেপি সরকারকে সমর্থন করেন।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে রবীন্দ্র বলেন, ‘আমি দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলেই বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারকে সমর্থন করেছি। আমি দলের কোনও শৃঙ্খলা ভাঙিনি। দলের স্বার্থের বিরুদ্ধেও কোনও কাজ করিনি। আমাকে দল যা বলেছিল, আমি তাই করেছি।’

আরও পড়ুন:—

নারদ কাণ্ড: সকালেই সুপ্রিম কোর্টে যেতে গিয়ে হোঁচট তৃণমূলের

মোদীকে এবার খোলা চ্যালেঞ্জ মমতার। বড় টার্গেট ঠিক করে দিলেন

রবীন্দ্রর আরও দাবি, ‘দল আমার বিরুদ্ধে যখন কোনও ব্যবস্থা নেয়নি, তার মানে দল আমার পাশেই রয়েছে।’

তৃণমূলের সহ-সভাপতি মুকুল রায় সংবাদ সংস্থাকে জানান, ‘নির্বাচনের পর রবীন্দ্র কংগ্রেসের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন। আমরা বলেছিলাম, যদি কংগ্রেস সরকার গড়ার জায়গায় থাকে তাহলে কংগ্রেসকে আমরা সমর্থন করব। কিন্তু আমাদের সঙ্গে কথা না বলেই উনি বিজেপি নেতাদের সঙ্গে রাজভবনে চলে যান।’

তবে দল কেন রবীন্দ্রর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না? এই প্রশ্ন করায় মুকুল বলেন, ‘আমরা যে কোনও সময় শৃঙ্খলাভঙ্গের জন্য ব্যবস্থা নিতেই পারি। আমরা এমন কোনও পরিস্থিতি তৈরি করতে পারি না, যার ফলে রবীন্দ্রর জীবনহানির আশঙ্কা থাকতে পারে।’

Mamata Banerjee Manipur T Robindra Singh BJP N Biren Singh Trust Vote
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -