SEND FEEDBACK

English
Bengali

আবার বড় জয় মোদীর, সার্টিফিকেট বিশ্ব ব্যাঙ্কের। ধাক্কা খেলেন মমতা

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | মার্চ ১৭, ২০১৭
Share it on
একেই বলে কপাল! উদ্যোগ নিয়ে সমালোচনা সয়েছেন মনমোহন। সুনাম পেলেন মোদী। আর বিরোধিতা করে ধাক্কা খেলেন মমতা।

যে কোনও কাজে আধার কার্ড বাধ্যতামূলক করার জন্য দেশে অনেক দলই বিরোধিতা করেছে নরেন্দ্র মোদীর। কিন্তু এটাকেই বিশ্বের সেরা ব্যবস্থা বলল বিশ্ব ব্যাঙ্ক। ২০০৯ সালে কংগ্রেস যখন সকলের জন্য আধারের উদ্যোগ নেয়, তখন মনমোহন সিংহ সরকারকেও কম বিরোধিতা সহ্য করতে হয়নি। সুপ্রিম কোর্টও আধারকে পরিচয়পত্র হিসেবে স্বীকৃতি দিতে চায়নি। এখন সেই আধার ব্যবস্থাই সমাদৃত। বিশ্বের কাছে এটা মডেল হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করলেন বিশ্ব ব্যাঙ্কের প্রধান আর্থিক বিশেষজ্ঞ পল রোমার।

আরও পড়ুন... 

আধার নম্বর দিয়ে মোবাইল সিম নিচ্ছেন? জানেন, কত বড় সর্বনাশ হয়ে গিয়েছে আপনার? 

ট্রেনের টিকিট কাটতে গেলেই আধার কার্ড বাধ্যতামূলক। জেনে নিন কবে থেকে

নোট বাতিলের আগে থেকেই বিভিন্ন ক্ষেত্রে আধার বাধ্যতামূলক করার নীতি নেয় মোদী সরকার। রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি পাওয়ার জন্য ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আধার সংযুক্তিকরণ বাধ্যতামূলক হয়। আর সম্প্রতি একশো দিনের কাজ থেকে আইআরসিটিসি থেকে অনলাইনে রেলের টিকিট কাটা— সবেতেই আধার বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্র। মোদী আধার-নির্ভর পেমেন্টস ব্যাঙ্কের কথাও বলেছেন। স্কুলে মিড ডে মিল পাওয়ার জন্যও আধার বাধ্যতামূলক করার কথা বলেছে কেন্দ্র। এর পরেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগেই একশো দিনের কাজে আধার বাধ্যতামূলক করা নিয়ে বিরোধিতা করেছেন তিনি। এখন এই সব ব্যবস্থাকেই সার্টিফিকেট দিলেন বিশ্ব ব্যাঙ্কের প্রধান আর্থিক বিশেষজ্ঞ।

শুধু তাই নয়, পল রোমারের বক্তব্য, এটাই বিশ্বের সব থেকে আধুনিক ব্যবস্থা। এর সঙ্গে আর্থিক লেনদেনকে যে ভাবে যুক্ত করা হয়েছে তারও প্রশংসা করেন তিনি। তাঁর মন্তব্য, ‘যদি সকলে গ্রহণ করে তবে গোটা বিশ্বের জন্যই এই ব্যবস্থা কার্যকর হবে।’

উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে ভারতের আধার ব্যবস্থা বিশ্বের সব থেকে বড় বায়োমেট্রিক পরিচয়পত্র। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ১১২ কোটি ৩০ লাখ মানুষের আধার কার্ড রয়েছে।

World Bank Aadhaar Narendra Modi
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -