SEND FEEDBACK

English
Bengali

গত পনেরো বছরে একবারও দীপাকে কড়া শাসন করতেই হয়নি, বলে দিলেন বিশ্বেশ্বর

নিজস্ব সংবাদদাতা | সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৬
Share it on
রবিবার তিনি কলকাতায় এসেছেন। সোমবারও সারাদিন ধরে চলল দীপা কর্মকারের সংবর্ধনা পর্ব। একাধিক অনুষ্ঠানে তাঁকে যোগ দিতে হল। সঙ্গে ছিলেন কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দী। একটি অনুষ্ঠানে বিশ্বেশ্বর জানালেন, গত ১৫ বছর ধরে দীপাকে কোচিং করানোর সময় একবারের জন্য তিনি ছাত্রীর গায়ে হাত দেননি!

রবিবার তিনি কলকাতায় এসেছেন। সোমবারও সারাদিন ধরে চলল দীপা কর্মকারের সংবর্ধনা পর্ব। একাধিক অনুষ্ঠানে তাঁকে যোগ দিতে হল। সঙ্গে ছিলেন কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দী। একটি অনুষ্ঠানে বিশ্বেশ্বর জানালেন, গত ১৫ বছর ধরে দীপাকে কোচিং করানোর সময় একবারের জন্য তিনি ছাত্রীর গায়ে হাত দেননি! 
বিশ্বেশ্বর বলেছেন, ‘‘আমাদের খেলার সময় কোচের হাতে প্রচুর মার খেয়েছি। কিন্তু এখন যুগ বদলেছে। গায়ে হাত দেওয়ার প্রশ্নই নেই। বরং দীপাকে উজ্জীবিত করতে আমি ওকে মানসিকভাবে আঘাত করতাম। তাছাড়া, ছাত্রী হিসাবে ও এত বাধ্য ছিল যে কড়া শাসনও করতে হয়নি।’’ সাত বছর বয়স থেকে বিশ্বেশ্বরের কাছে ট্রেনিং করছেন রিও অলিম্পিক্সে চতুর্থ হওয়া এই জিমন্যাস্ট।
প্রসঙ্গ উঠেছে ২০২০-র টোকিও অলিম্পিক্স নিয়ে। বিশ্বেশ্বর বলেছেন, ‘‘আমাদের আরও উন্নত পরিকাঠামোর প্রয়োজন। বিশেষত, ফোমের পিট না পেলে ট্রেনিং করাই সম্ভব নয়। স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (সাই) ডিরেক্টর জেনারেল আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন খুব তাড়াতাড়ি দেশের কয়েকটি সাই কেন্দ্রে ফোমের আধুনিক পিট এনে বসানোর।’’

Bisheswar nandy Dipa Karmakar
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -