SEND FEEDBACK

English
Bengali

মাঠে একটু আধটু উত্তেজনা পছন্দ করে ক্রিকেটারেরাও, বলছেন মার্ভ

সন্দীপ সরকার / রাঁচি | মার্চ ১৮, ২০১৭
Share it on
বিখ্যাত ঝোলা গোঁফটা আগের মতোই রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কেরিয়ারের শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলার ২৩ বছর পরেও কথাবার্তা আগের মতোই চাঁচাছোলা।

বিখ্যাত ঝোলা গোঁফটা আগের মতোই রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কেরিয়ারের শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলার ২৩ বছর পরেও কথাবার্তা আগের মতোই চাঁচাছোলা।
মার্ভ হিউজ। অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন ফাস্ট বোলার রাঁচিতে এসেছেন ভারত-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট ম্যাচ দেখতে। ঝাড়খণ্ড রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার ঝাঁ চকচকে স্টেডিয়ামের ‘জি’ লাউঞ্জে বসে খেলা দেখার ফাঁকে তিনি যা বললেন, শুনলে রীতিমতো চমকে উঠতে পারেন অনেকে।
চলতি টেস্ট সিরিজে বিরাট কোহলি-স্টিভ স্মিথ বাগ্‌যুদ্ধ নিয়ে প্রতিক্রিয়া চাওয়ায় হিউজ বলে দিলেন, ‘‘ওরা দু’জনই পরিণত ক্রিকেটার। তা ছাড়া মাঠে একটু উত্তেজনা ভাল। ক্রিকেটারেরাও সেটা উপভোগ করে।’’ আইসিসি যখন দুই দলের মধ্যে শান্তি ফেরাতে তৎপর, তখন হিউজ সম্পূর্ণ ভিন্ন মেরুতে। হয়তো তাঁর পক্ষেই সম্ভব। তিনি যে জন ম্যাকেনরো’র দর্শনে বিশ্বাসী। যে দর্শন বলে, প্রতিপক্ষের সঙ্গে বেশি ভাব জমাতে যেও না। বরং মাঠে নামলেই জেতার লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়ো।
 ক্রিকেট খেলার সময় স্লেজিংয়ের জন্য বিখ্যাত ছিলেন হিউজ। বল হাতে আগুন ছোটানোর পাশাপাশি বিপক্ষ ক্রিকেটারদের বাক্যবাণে জর্জরিত করে দিতেন। এমনকী, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডসের সঙ্গে বাগ্‌যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছিলেন। জাভেদ মিয়াঁদাদের সঙ্গে তাঁর ঝামেলা তো ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম স্মরণীয় ঘটনা হয়ে রয়েছে। মিয়াঁদাদ হিউজ’কে ‘বাস কন্ডাক্টর’ বলে কটাক্ষ করেছিলেন। মিয়াঁদাদ’কে আউট করে বাসভাড়া চেয়ে বসেছিলেন হিউজ!
অস্ট্রেলিয়ার একটি সংস্থা দেশের ক্রিকেট দলের হয়ে গলা ফাটাতে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে সমর্থকদের নিয়ে হাজির হয়। তাদের সঙ্গে প্রত্যেক সফরে থাকেন একজন করে প্রাক্তন ক্রিকেটারও। এবার যেমন হিউজ এসেছেন। পরনে গাঢ় নীল রংয়ের টি-শার্ট ও শর্টস। পায়ে শ্যু। চোখে কালো সানগ্লাস। শুক্রবার চা পানের বিরতির পর তখন ভারতের ইনিংস চলছিল। অস্ট্রেলীয় ফাস্ট বোলার প্যাট কামিন্সের আচমকা লাফিয়ে ওঠা বল সামলাতে না পেরে কে. এল. রাহুল কট বিহাইন্ড হতেই চেয়ার ছেড়ে দাঁড়িয়ে হাততালি দিতে শুরু করলেন ৫৩ টেস্টে ২১২টি উইকেট নেওয়া প্রাক্তন পেসার। বলে উঠলেন, ‘‘ব্রিলিয়ান্ট বল।’’
স্টিভ স্মিথের ব্যাটিং কেমন দেখলেন? হিউজ প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন। বললেন, ‘‘ভারতের মাটিতে একটা টেস্ট সিরিজে দু’টো সেঞ্চুরি করলে তাকে তো অবশ্যই কৃতিত্ব দিতেই হবে। স্মিথ দারুণ ব্যাট করেছে। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক হিসাবে ওর কাছ থেকে এরকম দায়িত্ববোধই সকলে প্রত্যাশা করেন।’’ ফের খেলায় মনোনিবেশ করার আগে তাঁর আক্ষেপ, ‘‘মিচেল স্টার্ক এই সিরিজে থাকলে ভারতীয় ব্যাটসম্যানেরা কিন্তু সত্যিই আরও চাপে থাকত!’’

Marv Huse
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -