SEND FEEDBACK

English
Bengali

এশিয়ার এক নম্বর হওয়াই পাখির চোখ চৌরাসিয়ার

মহাশ্বেতা ভট্টাচার্য | মার্চ ২১, ২০১৭
Share it on
কলকাতা যে দিন রঙ আর আবিরে মেতে, সেই দোলের দিনই টানা দ্বিতীয়বার জেতেন ইন্ডিয়ান ওপেন গল্‌ফ ট্রফিটা। শহরের অলিম্পিয়ানের সাফল্য নতুন রঙ যোগ করেছিল উৎসবের মেজাজে। অথচ হোলি ব্যাপারটাই নাকি অসহ্য লাগে শিবশঙ্কর প্রসাদ চৌরাসিয়ার।

কলকাতা যে দিন রঙ আর আবিরে মেতে, সেই দোলের দিনই টানা দ্বিতীয়বার জেতেন ইন্ডিয়ান ওপেন গল্‌ফ ট্রফিটা। শহরের অলিম্পিয়ানের সাফল্য নতুন রঙ যোগ করেছিল উৎসবের মেজাজে। অথচ হোলি ব্যাপারটাই নাকি অসহ্য লাগে শিবশঙ্কর প্রসাদ চৌরাসিয়ার। ‘‘আই হেট কালার্স,’’ সটান বলে দিলেন।
রঙ অপছন্দ। কিন্তু রয়্যাল ক্যালকাটা গল্‌ফ ক্লাবের সবুজ ঘাসের সঙ্গে এমনই সখ্যতা যে, তার টানে ইন্ডিয়ান ওপেন জয়েরি ন’দিনের মাথায় মঙ্গলবারই নেমে পড়ছেন ঘরের কোর্সে। কলকাতা ক্লাসিক গল্‌ফ খেলতে।
সোমবার আরসিজিসি’তে দারুণ ফুরফুরে মেজাজে চ্যাম্পিয়ন। বললেন, ‘‘দিল্লি থেকে ফিরে স্রেফ ছুটি কাটাচ্ছি। বন্ধুদের ফ্ল্যাটে ডেকে খাইয়েছি। সবাই অভিনন্দন জানাচ্ছে। ক্লান্তি কাটিয়ে দারুণ রিল্যাক্সড।’’ 
ইন্ডিয়ান ওপেন খেতাব উৎসর্গ করেছেন স্ত্রী সীমন্তিনীকে। যাঁকে নিজের ‘বেসরকারি কোচ’ বললেন। তবে গল্‌ফে স্ত্রীর মতামত গুরুত্ব পেলেও হোলিতে পায় না। ‘‘সীমন্তিনী ভীষণ রঙ খেলে। এ বারও টানাটানি করছিল। কিন্তু আমি ও দিকেই নেই!’’ সিনেমার ব্যাপারেও মানেন না ‘কোচ’কে। শিবশঙ্কর বলছিলেন, ‘‘আড়াই-তিন ঘণ্টা অন্ধকার হলে বসে থাকা! ভাবলেই কেমন যেন হয়!’’
নিজেকে রিল্যাক্সড বললেও, শিবশঙ্করের ভাবনায় এশীয় ট্যুরের এক নম্বরের সিংহাসন। ইন্ডিয়ান ওপেন জেতায় এশীয় অর্ডার অব মেরিটে তিনি দ্বিতীয় স্থানে। বলছিলেন, ‘‘নিজের খেলায় একটা দারুণ ছন্দ টের পাচ্ছি। কোর্সে খুব কম ভুল হচ্ছে। সম্ভবত সেরা ফর্মে আছি। এবার লক্ষ্য এশিয়ার এক নম্বর হওয়া।’’
যে লক্ষ্যে দিল্লির পুরনো বন্ধু ও কোচ সন্দীপ বর্মার সঙ্গে খেলার সুক্ষ্ম দিকগুলো মাজাঘষা চলছে। বললেন, ‘‘টেকনিকাল ভুল শুধরে নেওয়ার কাজ করছি ওর সঙ্গে। বিশেষ করে পাটিং টেকনিকে ভুল ছিল। সেটা ঠিক করার পর খেলায় বড় ফারাক হয়েছে।’’
জাপানে প্যানাসনিক ওপেন খেলবেন এপ্রিলে। তার আগে কলকাতায়। গত বছরও ইন্ডিয়ান ওপেন জিতে নেমেছিলেন কলকাতা ক্লাসিকের উদ্বোধনী সংস্করণে। যে টুর্নামেন্টের পুরস্কার মূল্য এ বার ৪০ লক্ষ টাকা। হাওড়া ব্রিজের অনুকরণে ট্রফিটা হাতে উঠুক বা না উঠুক, নতুনদের প্ররণা দিতে চান শিবশঙ্কর। বলছিলেন, ‘‘যখন নতুন ছিলাম, নামীদের পাশে খেলাটা উদ্বুদ্ধ করত। এখানে আমার নামাটা নতুনদের উৎসাহ দেবে।’’ ঘরের কোর্সে খেললে প্রস্তুতিটাও নাকি দারুণ হয়। তাই এটা জাপানের প্রস্তুতিও।
রশিদ খান, চিকারাঙ্গাপ্পার মতো ভারতীয় তারকারা আছেন টুর্নামেন্টে। ১২৬ জন পেশাদারের ফিল্ডে ভারতীয় ট্যুরের সেরা দশ। এবং শহরের দুই অভিজ্ঞ গল্‌ফার ফিরোজ আলি মোল্লা ও শঙ্কর দাসের পাশে নিজের প্রথম পেশাদার টুর্নামেন্টে নামছেন কলকাতার উদীয়মান তারকা বিরাজ মাডাপ্পা। 

Shib Shankar Prasad Chowrasia
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -