SEND FEEDBACK

English
Bengali

এবার খোল-করতাল! বিরোধীদের উদ্দেশ্যে নতুন ‘বাণী’ দিলেন অনুব্রত

রঞ্জন লাহিড়ী | মে ২০, ২০১৬
Share it on
গুড়-বাতাসা, গুড়-জলের কাজ শেষ। দলকে এনে দিলেন সাফল্য। মেলালেন নিজের ভবিষ্যদ্বাণীও। চলছে ঢাকের ‘চড়াম চড়াম’। নিজেও বাজালেন ঢাক।

কেষ্ট’র গলায় এবার খোল-করতাল! 
গুড়-বাতাসা, গুড়-জলের কাজ শেষ। দলকে এনে দিলেন সাফল্য। মেলালেন নিজের ভবিষ্যদ্বাণীও। চলছে ঢাকের ‘চড়াম চড়াম’। নিজেও বাজালেন ঢাক। তার মধ্যেই বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (কেষ্ট) শোনালেন তাঁর এই নতুন ‘বাণী’। বৃহস্পতিবার দলের জয়জয়কার ঘোষণার পরেই কেষ্ট বললেন, ‘‘এই ফলে সিপিএম ও কংগ্রেসের মৃত্যু হয়েছে। তাদের শ্রাদ্ধ হচ্ছে। তাই ঢাক নয়, শ্রাদ্ধে খোল-করতাল বাজবে। জেলায় কোনও সংঘর্ষ হবে না। সকলে শান্তিতে থাকবে।’’
  যা বলেছিলেন, তা-ই করে দেখালেন কেষ্ট। তিনি দাবি করেছিলেন, গতবারের চেয়ে এবার ভাল ফল করবেন তাঁরা। ফলাফলে মিলে গিয়েছে তাঁর ভবিষ্যদ্বাণী। জেলার ১১টি আসনের মধ্যে গতবার কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে তৃণমূল পেয়েছিল সাতটি আসন। বামেরা পেয়েছিল চারটি। কিন্তু এবার শক্তি বেড়েছে শাসকের। তাদের দখলে গিয়েছে ন’টি আসন। বিরোধীরা পেয়েছে মাত্র দু’টি। সাংগঠনিক সাফল্যে তাই উচ্ছ্বসিত কেষ্ট। স্পষ্ট বললেন, ‘‘ঢাক বাজাব বলেছিলাম। বাজিয়েছি। বিরোধীরা পালানোর পথ পাচ্ছে না।’’ 
দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বীরভূমের পাশাপাশি কেতুগ্রাম, মঙ্গলকোট ও আউশগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের দায়িত্বও দিয়েছিলেন তাঁকে। এই তিনটি আসনেও জিতেছে তৃণমূল। তবে এতকিছুর পরেও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে হাতছাড়া হয়েছে নানুর। বীরভূমের ময়ূরেশ্বরে বিজেপি প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায় পরাজিত হওয়ায় খুশি কেষ্ট। তিনি দাবি করেছিলেন, ভোটের ফলে বিজেপি প্রার্থীকে তৃতীয় স্থানে রাখতে না পারলে রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস নেবেন। সে কাজেও সফল হয়েছেন কেষ্ট। এদিন প্রথমে ‘চড়াম চড়াম’ ঢাকের কথা বললেও তিনি পরে জানান, সিপিএম ও কংগ্রেসের মৃত্যু হয়েছে। তাদের শ্রাদ্ধে তাই ঢাক নয়, খোল-করতাল বাজবে।
এদিন কাকভোরে ঘুম থেকে উঠেছিলেন কেষ্ট। স্নানের পর পুজো সারেন। ভোটের প্রবণতা বুঝতে ঘরেই টিভির সামনে বসেছিলেন। সকাল থেকেই ভোটগণনার প্রবণতায় দলের এগিয়ে থাকার খবরে স্বভাবতই উত্ফুল্ল হয়ে ওঠেন কেষ্ট।   কিছুক্ষণ পরে চলে যান রামপুরহাটে। সেখানে ঘণ্টাতিনেক থেকে সিউড়িতে দলীয় কার্যালয়ে পৌঁছন। বিকেলে ফিরে আসেন বোলপুরে। ততক্ষণে আরও তীব্র হয়েছে ঢাকের আওয়াজ। 

Anubrata Mondol TMC Birbhum
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -