SEND FEEDBACK

English
Bengali

বাবুলের মেলা আটকে বিপদে তৃণমূলের পুরসভা। কী বলল হাইকোর্ট?

নিজস্ব প্রতিবেদন, আসানসোল এবং কলকাতা, এবেলা.ইন | জানুয়ারি ১০, ২০১৭
Share it on
গত ৯ জানুয়ারি মেলার অনুমতি খারিজ করে আসানসোল পুরসভা। মেয়র তখন জানিয়েছিলেন, শুধু সাদা কাগজে তাদের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল।

১৩ জানুয়ারি থেকে আসানসোলের লোকো স্টেডিয়ামে সাংসদ মেলা হওয়ার কথা। আসানসোলের সাংসদ কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। সম্ভবত সেই কারণেই আসানসোল পুরনিগমের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন, এই মেলার অনুমতি পুরসভা দেবে না। যেমন দাবি, তেমন কাজ। দমকল-সহ অন্যান্য দফতরের অনুমতি পেলেও তাই আসানসোল পুরসভার অনুমতি পায়নি সাংসদ মেলা। বাধ্য হয়ে তাই কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল মেলার উদ্যোক্তা একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। আর এ দিনই কলকাতা হাইকোর্টে উঠেছিল মামলাটি। কেন মেলার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না, সেই প্রশ্ন তুলে আসানসোল পুরনিগমকে রীতিমতো ভর্ৎসনা করলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন।

গত ৯ জানুয়ারি মেলার অনুমতি খারিজ করে আসানসোল পুরসভা। মেয়র তখন জানিয়েছিলেন, শুধু সাদা কাগজে তাদের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। পুর-আইন মেনে নতুন করে আবেদন করতে বলা হয়। পুরসভার নিজস্ব যে ফর্ম রয়েছে তার সঙ্গে পুলিশ-দমকল দফতরের অনুমতিও জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সেই ফর্ম জমার পরে মেলার জন্য মেয়র চার সদস্যের কমিটি গঠন করে লোকো স্টেডিয়াম পরিদর্শনে পাঠান। তাঁরা রিপোর্ট জমা দেন তারপরেই পুরনিগম কিছু আইনি ফাঁক দেখিয়ে সাংসদ মেলার অনুমতি দিতে অস্বীকার করে। এক পরেই মেলার অনুমতি চেয়ে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করা হয়। এ দিন সেই মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন আসানসোল পুরসভার ভূমিকায় রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘আপনারা মেলা প্রাঙ্গনে পার্কিং, জৈব টয়লেট, নিকাশি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। এগুলো নিয়ে আপনাদের কি সত্যিই কিছু আসে যায়? গঙ্গাসাগর মেলার সময় এসব দেখা হয়?’ পুরনিগমের উদ্দেশে বিচারপতি আরও বলেন, ‘আপনারা বলেছেন মেলার জন্য স্থানীয় স্কুলের অনুমতি নিতে হবে। কিন্তু স্থানীয় স্কুলের কি এই অনুমতি দেওয়ার এক্তিয়ার রয়েছে?’ 

একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এবং বণিকসভা সিআইআই মিলিতভাবে এই সাংসদ মেলার আয়োজন করেছিল। আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় আগেই অভিযোগ করেছিলেন, রাজনৈতিক কারণেই মেলার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি অবশ্য এক একবার এক এক রকম যুক্তি দিয়েছেন। কখনও তিনি বলেছেন, ওই সময়ে আসানসোলে বইমেলা চলবে। আবার কখনও তিনি বলেছেন, মেলার নামে অশ্লীল নাচের আয়োজন করবেন আসানসোলের সাংসদ বাবুল। কলকাতা হাইকোর্ট অবশ্য এ দিন আসানসোলের মেয়রকে নির্দেশ দিয়েছে, পুরসভার তরফে একটি প্রতিনিধি দলকে মেলা প্রাঙ্গন পরিদর্শনে পাঠাতে হবে। 

Asansol Babul Supriyo TMC
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -