SEND FEEDBACK

English
Bengali

খুব ইচ্ছা ছিল ইটের ঘরের, রিকশচালকের স্বপ্ন কেড়েছে আগুন

অর্ণবাংশু নিয়োগী | ডিসেম্বর ১৯, ২০১৬
Share it on
রিকশ চালিয়েই প্রতিদিন অল্প অল্প করে টাকা জমাতেন সত্য। কিন্তু শুক্রবার রাতের আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে তাঁর সাধ।

একটু একটু করে জমিয়েছিলেন ৩২ হাজার টাকা! ইচ্ছা ছিল ইটের দেওয়াল তুলবেন ঘরে। এক আগুনেই পুরো সঞ্চয় ছাই। 
পাতিপুকুরের সুভাষ কলোনিতে রিকশচালক সত্য কর্মকারের পড়শিদের প্রত্যেকেরই ছিল ইটের দেওয়াল। একমাত্র তাঁরই ছিল বেড়ার ঘর। একবারে ইটের দেওয়াল তুলে বাড়ি করা সত্যের সামর্থ্যের বাইরে। এককালীন মোটা অঙ্কের টাকা খরচ করা সম্ভব নয়। তাই রিকশ চালিয়েই প্রতিদিন অল্প অল্প করে টাকা জমাতেন সত্য। কিন্তু শুক্রবার রাতের আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে তাঁর সাধ। রবিবার সকালে পড়ে থাকা ছাই ঘেঁটে প্রায় একবাটি খুচরো পয়সা উদ্ধার করেন সত্য। তাঁর কথায়, ‘‘শুধু আমাদেরই বেড়ার ঘর ছিল। স্বপ্ন ছিল, বেড়ার বদলে ইটের দেওয়ালের ঘর বানাব। প্রায় ৩২ হাজার টাকা জমিয়েছিলাম। সব পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। ৭০০ টাকার মতো খুচরো পয়সা উদ্ধার করেছি।’’
তিন সদস্যের পরিবারের বাবার সঙ্গে হাত লাগাতে শুরু করেছিলেন ছেলে রবীন। সত্যের কথায়, ‘‘গত মাসেই ছেলে গিয়ে পুরনো টাকা বদলে নতুন টাকা নিয়ে এসেছে। কয়েকটা পুরনো ছিল। তবে উদ্ধার হওয়া খুচরো পয়সাগুলি পুড়ে কালো হয়ে গিয়েছে।’’
স্থানীয় সূত্রের খবর, আগুনে পুড়ে যাওয়া বাড়িগুলির পরিবারের লোকজনকে দত্তবাগান বীরপাড়ার শিল্পকলা শিক্ষা মন্দির প্রাথমিক স্কুলে রাখা হয়েছে। ঘটনাচক্রে, অগ্নিকাণ্ডে মৃত প্রিয়া অধিকারী এই স্কুলেরই ছাত্রী ছিল। পুরসভার তরফে খাওয়াদাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
ঘটনার খবর পেয়ে দুর্গত পরিবারগুলির পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসেন দমদমের এক আবাসনের বাসিন্দারা। পরিবারগুলির হাতে জামাকাপড় এবং মৃত প্রিয়ার বাবার হাতে এক হাজার টাকাও তুলে দেন তাঁরা। অবসরপ্রাপ্ত সেনা অফিসার বরুণদেব ঘোষাল বলেন, ‘‘আমরা কোনও দলের হয়ে আসিনি। এটা পুরোটাই মানবিকতার বিষয়।’’ অন্যদিকে, এদিন ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। তাঁকে দেখে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলি পুনর্বাসনের দাবি জানায়। অধীর বলেন, ‘‘কলকাতায় আগুন লাগা নিয়মে দাঁড়িয়ে গিয়েছে। শুধু নীল, সাদা রং করলে হবে না। বস্তি উন্নয়ন করতে হবে। মনে হয়, সরকারের ব্যর্থতা রয়েছে।’’

Fire Patipukur Satya Karmakar
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -