SEND FEEDBACK

English
Bengali

মোদীর বিরুদ্ধে আজ চরম আন্দোলন মমতার, পরিণতি মারাত্মক হতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | জানুয়ারি ১০, ২০১৭
Share it on
প্রথমে নোট বাতিল ও পরে সিবিআইয়ের সক্রিয়তা। কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্যের সংঘাত চলছেই। এরই মধ্যে এক চরম আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস।

নোট বাতিলের পরেই কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন তৃণমূলনেত্রী। কিন্তু সেই আন্দোলন নতুন মাত্রা পায় তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ তথা লোকসভার নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে সিবিআই গ্রেফতার করার পরে। তাপস পালকে গ্রেফতারের পর থেকেই সুর চড়াতে থাকে তৃণমূল। কিন্তু সুদীপের গ্রেফতার হওয়ার পরে কেন্দ্র-বিরোধিতাকে চরম পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

প্রথম থেকেই তৃণমূল দাবি করে এসেছে যে, নোট বাতিল সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করাতেই সিবিআই দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের উপরে চাপ তৈরি করছে কেন্দ্র। তাই সিবিআই-এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শনের পাশাপাশি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার কলকাতা সদর দফতরের সামনেও অবস্থান বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। এবার সেই আন্দোলনে যোগ দিতে চলেছে মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং। তৃণমূল কংগ্রেস-সূত্রে খবর, বুধবার বোলপুর থেকে ফিরে সেখানে মমতা আন্দোলনে যোগ দেবেন। তার প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গিয়েছে।

নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে মমতা টানা তোপ দেগে চলেছেন গত দু’মাস ধরে। বীরভূমে বাউল মেলার উদ্বোধনে গিয়ে মমতা বলেন, দিল্লিতে নির্লজ্জ, তুঘলকি রাজত্ব চলছে। আর তার প্রতিবাদ করলেই সিবিআই-কে দিয়ে চক্রান্ত করা হচ্ছে। মমতার কথায়— ‘উনি প্লাস্টিকের ব্যবসা করেন বলে সবাইকে প্লাস্টিক খেতে হবে, প্লাস্টিক পরতে হবে। আর কেউ কেউ কাটমানি খাবে। লোকের হাতে টাকা নেই আর বিজেপি-র লোকেরা কমিশন খেয়ে কোটি কোটি টাকা কামিয়ে নিল। সাধারণ মানুষের ট্যাক্সও কাটবে, আবার টাকাও কেড়ে নেবে।’ 

মাটি উৎসবের জন্য সোমবার বর্ধমানে যান মুখ্যমন্ত্রী। রোজ ভ্যালি কাণ্ডের কথা মুখে না আনলেও সিবিআইয়ের ‘অপব্যবহারের’ জন্য ওই মঞ্চ থেকেই বলেন, ‘কনস্পিরেসি ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন চালু হয়েছে। প্রতিবাদ করলেই সন্ত্রাস, চক্রান্তকারী দল বলা হচ্ছে। দেশে ভয়াবহ জরুরি অবস্থা চলছে।’

এমনিতে নোট বাতিলের প্রতিবাদের কথা বলা হলেও আসলে যে যাবতীয় ক্ষোভ সিবিআই-এর বিরুদ্ধেই, তা তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলনেই স্পষ্ট। বুধবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতায় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার দফতরের সামনে বিক্ষোভে যোগ দিলে তা অবশ্যই এক নজির তৈরি করবে। কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এখনও পর্যন্ত নোট বাতিলের প্রতিবাদে এমন আন্দোলনে নামেননি। এর ফলে কেন্দ্র আরও আক্রমণাত্মক হতে পারে বলেও মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

mamata banerjee narendra modi
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -