SEND FEEDBACK

English
Bengali

নার্সিংহোম যেন ডাকাত, টনক নড়েছে রাজ্যের। রোগীদের বাঁচাতে কী পদক্ষেপ?

নিজস্ব প্রতিবেদন, এবেলা.ইন | ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭
Share it on
বেসরকারি হাসপতাল যেন ডাকাতদের আখড়া। রোগী ভর্তি হওয়ার পরে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে বিল। আর সেটা করা যাবে না। কড়া পদক্ষেপ করছে রাজ্য সরকার।

রাজ্যে জনসংখ্যার তুলনায় সরকারি হাসপাতালের পরিকাঠামো অপর্যাপ্ত। আর তাই এখন মধ্যবিত্তকেও বেসরকারি হাসপাতালের উপরে ভরসা করতে হয়। কিন্তু বেসরকারি হাসপতাল যেন ডাকাতের আখড়া। রোগী ভর্তি হওয়ার পরে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে বিল। আর সেটা করা যাবে না। কড় পদক্ষেপ করছে রাজ্য সরকার।

বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার বিপুল খরচ নিয়ে ক’দিন আগেই অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু অসন্তোষ প্রকাশ করেই ক্ষান্ত থাকেননি তিনি। রাজ্য ক্রেতা সুরক্ষা দফতরকে পদক্ষেপ করতেও বলেছেন। আর সেই নির্দেশ পেতেই আগামী বুধবার ২২ ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালের প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক ডেকেছেন ক্রেতা সুরক্ষা দফতরের মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে। 

শুধু কলকাতা শহরেই নয়, গোটা রাজ্যে বেসরকারি হাসপাতাল চিকিৎসার খরচ ইচ্ছামতো বাড়িয়ে দিয়েছে। ওষুধ বা চিকিৎসা সামগ্রীর দাম কমলেও রোগীদের থেকে পুরনো দামই নেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ। এমনও অভিযোগ রয়েছে যেখানে, রোগীর বিলে এমন খরচ যুক্ত করা হচ্ছে যা আদৌ করা হয়নি কিংবা ওই খরচ রোগীর দেওয়ার কথা নয়। এই রকম প্রচুর অভিযোগ জমা পড়েছে ক্রেতা সুরক্ষা দফতরে। রোগীর পরিবারের সঙ্গে বিল নিয়ে হাসপতালের গোলমাল প্রায় নিত্যদিনের ঘটনা। কলকাতা শহরে হাসপাতাল ভাঙচুরের নজিরও প্রায় নিয়মিত।

পশ্চিমবঙ্গে শুধু রাজ্যের মানুষই নয়, কলকাতা শহরে ভিন রাজ্য এবং প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশ থেকে প্রচুর রোগী চিকিৎসার জন্য আসেন। তাঁদেরও বেসরকারি হাসপাতালের চক্রান্তের শিকার হতে হচ্ছে বলে অনেক অভিযোগ রয়েছে। প্রয়োজন ছাড়া রোগীকে আইসিইউ-তে ভর্তি রাখার অভিযোগ তো রয়েছেই সেই সঙ্গে রোগীকে অকারণে ভেন্টিলেশনে রাখা, এমনকী প্রয়োজন ছাড়া অস্ত্রোপচার করার অভিযোগও ওঠে।

রাজ্য সরকার চাইছে, প্রথমে কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালগুলির বিলের ধোঁয়াশা নিয়ে তদন্ত করা হবে। এর পরে জেলায় জেলায় বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোমগুলির উপরেও নিয়ন্ত্রণ চাইছে সরকার।

mamata banerjee hospital
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -