SEND FEEDBACK

English
Bengali

ফের সিবিআই হেফাজতে সুদীপ, সারদা যোগেও জেরা

নিজস্ব প্রতিবেদন,এবেলা.ইন | জানুয়ারি ৯, ২০১৭
Share it on
প্রভাবশালী তকমা দিয়ে যে ভাবে আইনি পথে মদন মিত্রকে ‘ঘেরা’ হয়েছিল, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে সম্ভবত সে ভাবেই ‘ঘিরতে’ চাইছে সিবিআই।

 রোজভ্যালি-কাণ্ডে ফের তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে হেফাজতে নিল সিবিআই। ভুবনেশ্বরের খুরদা জেলা আদালতের বিচারক আগামী ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত তাঁকে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হেফাজতে পাঠিয়েছেন। 


সোমবার আদালতে সিবিআই দাবি করে, রোজভ্যালির কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে সুদীপের যোগাযোগ সংক্রান্ত কয়েকটি গোপন জবানবন্দি তাদের হাতে এসেছে। সেগুলি খতিয়ে দেখতে সুদীপকে আটদিনের জন্য নিজেদের হেফাজতে চায় তারা। কিন্তু বিচারক ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। এদিন সওয়াল-জবাবের পর বিস্তারিতভাবে কেস ডায়েরি খতিয়ে দেখেন বিচারক। নির্দেশ দিতে রাত ৯টা বেজে যায়। শুনানির আগে সুদীপ সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘‘নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে লোকসভায় আন্দোলন করেছিলাম। তাই এই ষড়যন্ত্র। বাজেট অধিবেশন শেষ না হওয়া পর্যন্ত এরা আমাকে ছাড়বে না।’’ 
সিবিআই এদিন আদালতে জানিয়েছে, সুদীপের দুই প্রাক্তন সহযোগী, একজন দেহরক্ষী-সহ পাঁচজনের জবানবন্দি পেয়েছে তারা। তাদের দাবি, রোজভ্যালির কর্ণধারের ছেলেকে স্কুলে ভর্তি করানোর জন্য চিঠি দেওয়া ছাড়াও গৌতমকে ওই স্কুলেও নিয়ে গিয়েছিলেন সুদীপ। অভিযোগ, সুদীপের মধ্যস্থতায় গৌতম স্কুল কর্তৃপক্ষকে অনুদানও দেন। এ বিষয়ে সাংসদ-জায়া নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য, ‘‘বিধায়ক হিসাবে আমরা সুপারিশ করে থাকি। প্রয়োজনে সঙ্গে যাই। তার সঙ্গে দুর্নীতির সম্পর্ক কোথায়?’’ সুদীপের আইনজীবী রাজদীপ মজুমদার বলেন, ‘‘গ্রেফতারের পরে ছ’দিন হেফাজতে রেখেও কোনও প্রামাণ্য তথ্য আদালতে পেশ করা হয়নি।’’ 


রোজভ্যালির পাশাপাশি, সারদা সংস্থার আর্থিক প্রতারণার তদন্তেও সারদা-কর্তা সুদীপ্ত সেনের মুখোমুখি বসিয়ে সুদীপকে জেরা করতে চায় সিবিআই। জানা গিয়েছে, সারদার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া নতুন একটি মামলায় সুদীপ্তকে গ্রেফতার করেছেন তদন্তকারীরা। বর্তমানে তিনি জেল হেফাজতে। তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে সিবিআই।

Sudip Banerjee CBI
Share it on
আরও যা আছে
আরও খবর
ওয়েবসাইটে আরও যা আছে
আরও খবর
আমাদের অন্যান্য প্রকাশনাগুলি -