দক্ষিণ পাকিস্তানের ঘোটকি শহরে এক হিন্দু কিশোরকে গুলি করে হত্যা করল অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা। গুজব ছড়িয়েছিল যে, ওই কিশোরটি ‘কোরান’ পুড়িয়ে ফেলেছে। অথচ, এহেন অভিযোগের কোনও সারবত্তা এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে করাচি থেকে প্রায় ৪২০ কিলোমিটার দূরে ঘোটকি শহর। সেখানেই এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে। ওই কিশোরটি ছাড়া আর এক কিশোরও জখম হয়েছে দুষ্কৃতীদের গুলিতে। সংবাদসংস্থা এএফপি-কে স্থানীয় পুলিশ আধিকারিক মাসুদ বাঙ্গাশ জানিয়েছেন, ‘‘অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা এক হিন্দু কিশোরকে গুলি করে হত্যা করেছে। আর একজন জখম হয়েছে।’’

বাঙ্গাশ এ-ও স্বীকার করেছেন, ‘‘এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। তবে কোরান পোড়ানোর সঙ্গে এই ঘটনার সম্পর্ক রয়েছে, তা প্রমাণিত নয়।’’ দিনচারেক আগে এই এলাকায় কোরান পোড়ানোর অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তার পর থেকেই এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে। তবে সেই ব্যক্তি আদৌ কোরান পুড়িয়েছিলেন কি না, তা প্রমাণিত নয়। সেই ঘটনার সঙ্গে এদিনের মর্মান্তিক ঘটনার যোগসূত্র রয়েছে কি না, তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ।