বিক্রি হয়ে যাচ্ছে আরকে স্টুডিও। ৭০ বছর আগে রাজ কপূরের হাত ধরে পথ চলা শুরু এই স্টুডিওর। আরব সাগরের তীরে এই স্টুডিও সেই সময়ে যেন চলচ্চিত্র দুনিয়ায় ঝড় তুলেছিল। স্টুডিও-র প্রথম ছবি ‘আগ’ (১৯৪৮)। এর পরে আর থেমে থাকেনি কপূর পরিবারের স্টুডিও। ‘শ্রী ৪২০’ (১৯৫৫), ‘মেরা নাম জোকার’ (১৯৭০), ‘সত্যম শিবম সুন্দরম’ (১৯৭৮), ‘রাম তেরি গঙ্গা মেয়লি’ (১৯৮৫)-এর মতো ছবি বলিউডকে উপহার দিয়েছে আরকে ফিলমস। বহু চড়াই উতরাই অতিক্রম করে ১৯৯৯ পর্যন্ত সচল ছিল স্টুডিও।  কিন্তু তার পরে থেমে যায় পথ চলা। কিন্তু নিয়ম করে প্রতি বছর পালিত হয় গণেশ পুজো।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

বছরের পর বছর নিষ্ক্রিয় ভাবে পড়ে থাকার কারণে শেষ পর্যন্ত কপূর পরিবার সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেলেছে, বেচে দেওয়া হবে আরকে স্টুডিও। ২ একর জমিতে পুরো সম্পত্তির দাম প্রায় ৫০০ কোটি। এমনটাই জানা গিয়েছে এক জাতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে। এই বছরেরই ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আরকে স্টুডিও-কে বিদায় জানাবেন কপূর পরিবারের সদস্যরা। এবছরই  শেষ বার গণেশ পুজোও হবে রাজ কপূরের হাতে গড়া স্টুডিওতে। 

কপূর স্টুডিও-র শেষ গণেশ পুজোর সাক্ষী থাকতে চলেছেন আলিয়া ভট্ট। বলিউডে কান পাতলেই বেশ কিছুদিন ধরে শোনা যাচ্ছিল, রণবীর কপূরের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন আলিয়া ভট্ট। এই তথ্যে বেশ কয়েকবার ইতিবাচক ইঙ্গিতও দিয়েছেন রণবীর ও আলিয়া দু’জনেই। তাই পরিবারের এই গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানে আলিয়াকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন রণবীরও। বলাই যায়, কপূর পরিবারের এমন মন ভার করা দিনে রণবীরের পাশেই থাকবেন মহেশ কন্যা।