দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর কাছ থেকে পাকিস্তানের ‘হৃদয়’ জেতার মন্ত্র পেয়েছিলেন তৎকালীন ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। বাজপেয়ীর শেখানো মন্ত্রকেই বীজমন্ত্র বানিয়ে পড়শি দেশ পাকিস্তান থেকে জিতে এসেছিল সৌরভের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে সম্পর্ক ভাল করাই ছিল বাজপেয়ীর উদ্দেশ্য। ক্রিকেটের মাধ্যমে শীতল সম্পর্কের বরফ গলানো সম্ভব, তা দেখিয়েছিলেন বাজপেয়ী। তখন মজা করে বলা হতো, ভারত-পাক সম্পর্কের বরফ কবে যে গলে আর কবে যে জমে, তা কেউ জানেন না। রাজনৈতিক দিক থেকে দু’ দেশের সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকেছিল। 

২০০১ সালে সংসদ হামলার পরে দুই দেশের সম্পর্ক খুব খারাপ হয়। ২০০৩ সালের পর থেকেই পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক করার কাজ শুরু করে দেন বাজপেয়ী। 

২০০৪ সালের মার্চে টেস্ট এবং ওয়ানডে সিরিজ খেলতে পাকিস্তান যায় ভারতীয় দল। পাক-সফরে যাওয়ার আগে সৌরভ-সহ গোটা দলের সঙ্গে দেখা করেন বাজপেয়ী। সৌরভকে বিশেষ একটি ব্যাট উপহার দিয়েছিলেন। সেই ব্যাটে লেখা ছিল মন্ত্র, ‘‘খেল হি নহি, দিল ভি জিতিয়ে —শুভকামনায়ে।’’ অর্থাৎ বাংলায় তর্জমা করলে তা দাঁড়ায় খেলাতেই কেবল নয়, তার সঙ্গে মনটাও জিতে এসো। শুভকামনা রইল। 

সৌরভরা পাক-মুলুকে গিয়ে সিরিজ জিতে এসেছিলেন। সেই সঙ্গে পাকিস্তানের হৃদয় জিতেও এসেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। বাজপেয়ীর প্রয়াণে জনমানসের স্মৃতিতে ফিরে এল সেই ঐতিহাসিক সফরের উজ্জ্বল অধ্যায়।