এবেলা ওয়েবসাইটে ২৫ এপ্রিল একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়— কোন আইপিএল তারকার সঙ্গে ডেটে যেতে চান বাংলার টেলি-নায়িকারা। এই প্রতিবেদনে সাম্প্রতিক সময়ের জনপ্রিয় টেলি-নায়িকাদের অনেকেরই মতামত ও বক্তব্য প্রকাশিত হয়। ‘জড়োয়ার ঝুমকো’ ধারাবাহিকের জড়োয়া অর্থাৎ অঙ্কিতা মজুমদারের মতামতও প্রকাশিত হয় ওই প্রতিবেদনে। 

আরও পড়ুন

টেলিপর্দায় কামব্যাক অর্জুনের, আসছে নতুুন ধারাবাহিক 

অন্যান্য টেলি-নায়িকাদের মতো তিনিও প্রতিবেদনটি শেয়ার করেন সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ব্যক্তিগত প্রোফাইলে। তাঁর প্রোফাইলে থাকা বন্ধুবান্ধব ও অনুগামীদের অনেকেই প্রতিবেদনটি লাইক করেন ও মতামত প্রকাশ করেন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই এক জনৈক ব্যক্তি কমেন্টে অত্যন্ত কুরুচিকর ইঙ্গিতপূর্ণ একটি মন্তব্য করেন। তিনি লেখেন, ‘টাকা থাকলে সবার সাথেই যাবে ডেটে।’ এই ধরনের মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়ায় মহিলাদের সম্পর্কে প্রায়শই করা হয়ে থাকে। আর সেই মহিলা যদি অভিনয়, মডেলিং বা বিনোদন জগতের সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে থাকেন, তাহলে তো কোনও কথাই নেই।  

বহু মানুষ ধরেই নেন যে সেই মহিলা ‘পাবলিক ফিগার’ মান‌েই পাবলিকের অধিকার রয়েছে তাঁর সম্পর্কে অকারণ, অপ্রাসঙ্গিক কুরুচিকর কথাবার্তা বলার। এই ধরনের মন্তব্য পড়ে অনেকে প্রতিবাদ করেন, অনেকে উদাসীন থাকেন আবার অনেকে চুপচাপ ওই ধরনের প্রোফাইল ব্লক করে দেন। অঙ্কিতাও প্রোফাইলটি ব্লক করেছেন কিন্তু নীরবে নয়। 

যোগ্য জবাব দিয়েছেন এবং সেই জবাবটি শুধুমাত্র নিজের জন্য নয়, সব টেলি-নায়িকাদের হয়েই। তিনি লেখেন, ‘সবার সাথে কিনা জানি না, তবে আপনার সাথে তো নিশ্চয়ই যাবে না। কারণ আপনি একটি অত্যন্ত নীচু মনের মানুষ। তাই আপনাকে ব্লক করতে বাধ্য হলাম।’  টেলিভিশনের অনুষ্ঠানের মান নিয়ে বাংলার দর্শকদের অনেক কিছুই বলার থাকতে পারে। কিন্তু অভিনেতা-অভিনেত্রীদের সম্পর্কে যে কোনও ছুতোয় কুরুচিকর মন্তব্য করার প্রবণতা অশিক্ষার লক্ষণ ছাড়া আর কিছুই নয়।