পেটের ব্যথায় নাজেহাল হয়ে গিয়েছিলেন ৩৯ বছরের রাশিয়ান যুবক এমিল আবদুল্লায়েভ। শ্বাসকষ্ট ও অন্যান্য অস্বস্তিও ছিল। বারে বারে ডাক্তারি পরীক্ষা চলছিল। 

অবশেষে তাঁর পেটে শল্য চিকিৎসা করে বের করে আনা হল একটা অতিকায় টিউমার। টিউমারের সাইজ ফুটবলটি দেখলে চমকে উঠতে হয়। 

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সূত্রে জানা যাচ্ছে, দিল্লির এক বেসরকারি হাসপাতালে এই যুবকের চিকিৎসা করেন নামী শল্য চিকিৎসক সব্যসাচী বল। তিনিই সম্পন্ন করেন এই কঠিন ও জটিল অপারেশন। তিনি ওই হাসপাতালের থোরাসিক অঙ্কো সার্জারি বিভাগের ডিরেক্টর।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

জানা গিয়েছে, অপারেশনের পরে টিউমারটির চেহারা দেখে চিকিৎসকরা অবাক হয়ে যান। প্রায় ৩.২ কেজি ওজনের সেই টিউমারটির আকৃতি প্রায় একটি ফুটবলের মতো। টিউমারটির অবস্থান ছিল এমিলের ডানদিকের ফুসফুসের পাশেই।

চিকিৎসক সব্যসাচী বল।

টিউমারের চাপে বেচারি এমিল ভাল করে শ্বাস নিতে পারছিলেন না। অবশেষে বাঙালি চিকিৎসক ও তাঁর দলবলের প্রচেষ্টায় বিপন্মুক্তি ঘটল তাঁর। 

চিকিৎসক সব্যসাচী বল জানিয়েছেন, এই কেসটি ছিল দারুণ চ্যালেঞ্জিং। টিউমারটির এমন অস্বাভাবিক বৃদ্ধি তাঁদের চিন্তিত রেখেছিল।