কলকাতায় অমিত শাহর সভা সেরে ফেরার পরে রাতেই দক্ষিণ ২৪ পরগনা পশ্চিম ভাগের বিজেপি সম্পাদিকাকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল। শিশুকন্যার মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে তাঁর শ্লীলতাহানি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই নির্যাতিতা। পাশাপাশি তাঁর পরিবারের সদস্যদের মারধরের অভিযোগও উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। 

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

জানা যাচ্ছে, গতকাল, শনিবার রাত দুটো নাগাদ ৫০ জনের এক দুষ্কৃতীর দল আগ্নেয়াস্ত্র সহ তাদের নোদাখালি থানার চকমানিকের বাড়িতে আচমকা হামলা চালায়। জেলা বিজেপির পক্ষ থেকে ডায়মন্ড হারবার এসপির কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। 

তবে তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব তাঁদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

পাশাপাশি অমিত শাহর অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ায় বজবজে বিজেপির দু’টি পার্টি অফিসের পাশাপাশি একটি মুদিখানা দোকান ও একটি মুড়ি কারখানা ভেঙে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করে জানানো হয়েছে, বিজেপির নিজেদের মধ্যে হওয়া গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কারণেই ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।