মার্শাল আর্টস বিষয়টাই আত্মরক্ষার এবং ইদানীং কালে যেভাবে বেড়ে চলেছে অপরাধ ও অপরাধীর সংখ্যা, ততই বেশি করে এই ধরনের আত্মরক্ষা পদ্ধতির প্রশিক্ষণের প্রয়োজন পড়েছে। সম্প্রতি ক্র্যাটোজ কমব্যাট অ্যাকাডেমি আয়োজন করেছিল একটি দু’দিন ব্যাপী গ্র্যাপলিং সেমিনার ও ওয়র্কশপের। ক্যালকাটা জুডো ক্লাবে প্রায় ৩৫ জন প্রফেশনাল মার্শাল আর্টিস্টকে বিশেষ গ্র্যাপলিং টেকনিক শেখালেন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন, ইতালির ব্রুনো ইভান টমাসেটি। জুডো, সাম্বো এবং ব্রাজিলিয়ান যুযুৎসু— মার্শাল আর্টসের এই তিন ঘরানাতেই পারদর্শী তিনি।

ছবি সৌজন্য: অ্যাসরটেড মোশন পিকচার্স

এদেশে মার্শাল আর্টস চর্চার প্রায় একশো বছর পূর্ণ হতে চলল। অফিসিয়াল রেকর্ড অনুযায়ী, এদেশে প্রথম জুডো প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাপনাটি করেছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, শান্তিনিকেতন আশ্রমে। তিনি চেয়েছিলেন তাঁর আশ্রমিক মেয়েরা শুধু নাচ-গান-পড়াশোনা-শিল্পচর্চাতেই নয়, আত্মরক্ষাতেও পারদর্শী হয়ে উঠুক। একশো বছর পরে, সমাজ আজ এমন একটা জায়গায় এসে দাঁড়িয়েছে যে এই ধরনের প্রশিক্ষণ শুধু মেয়েদের নয়, প্রত্যেকটি মানুষেরই প্রয়োজন।

 

ছবি সৌজন্য: অ্যাসরটেড মোশন পিকচার্স

ক্রমশই বেড়ে চলেছে অপরাধ ও অপরাধীর সংখ্যা। বিপন্ন কি শুধু মেয়েদের সম্মান? গুন্ডারাজ বা তোলাবাজদের দাপটে যে কোনও নাগরিকেরই জীবন বিপন্ন হয়ে উঠতে পারে যে কোনও মুহূর্তে। তাই প্রত্যেকটি মানুষেরই আত্মরক্ষার কিছু উপায় জেনে রাখা উচিত। ক্র্যাটোজ কমব্যাট অ্যাকাডেমির এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। সদ্য শেষ হওয়া টমাসেটি-র ওয়র্কশপ ক্র্যাটোজ কমব্যাট অ্যাকাডেমির মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষণ সিরিজের প্রথম পর্ব। এ রাজ্যে মার্শাল আর্ট কমিউনিটিকে উন্নততর প্রশিক্ষণ দিতে আরও বেশ কিছু প্রশিক্ষণ শিবির আয়োজিত হবে শহরে খুব তাড়াতাড়ি। 

দেখে নিন টমাসেটির ওয়র্কশপের একটি অংশ নীচের লিঙ্কে ক্লিক করে—