আপনি নিশ্চয়ই ভাবেন ঠগ ধরা খুব সহজ। আপনি নিশ্চয়ই ভাবেন আপনার প্রেমিককে আপনি খুব ভালো চেনেন। কারণ তিনি বিছানায় সহজেই ধরা দেন। আপনি ভুল জানেন। অন্তত সমীক্ষা তাই-ই বলছে।

আমরা সকলেই ভাবি একটি সম্পর্কে থাকাকালীন সময়ে মানুষ অন্য সম্পর্কে জড়ায় না। কিন্তু আসলে মানুষ দ্বিতীয় সম্পর্কটিকে স্মুথ ভাবে চালিয়ে নিয়ে যেতেই প্রথম সম্পর্কে যৌনতায় সাবলীল থাকে। হ্যাঁ, নতুন এক সমীক্ষা আমাদের ভাবনার ভুল ভেঙে দিচ্ছে।

সম্প্রতি ইল্লিসিট এনকাউন্টারস নামক একটি ওয়েবসাইট একটি সমীক্ষা চালিয়েছে ১০০০ জন গ্রাহকদের মধ্যে। তাতে দেখা গেছে, সমীক্ষায় অং‌শগ্রহণকারীদের দুই তৃতীয়াংশ মানুষই তাঁদের দুই সম্পর্কের মধ্যে অন্তত যৌন সংসর্গের ক্ষেত্রে ভাল ভারসাম্য বজায় রাখতে পারেন। যাতে সাপও মরে, লাঠিও ভাঙে না। 

সবচেয়ে বড় কথা, অন্য অ্যাফেয়ার চলা কালে তাঁরা তাঁদের স্টেডি পার্টনারের সঙ্গেও যৌন সম্পর্ক চালিয়ে যান। মাত্র ১৫ শতাংশ মানুষ একটি নতুন সম্পর্কে প্রবেশ করার সময়ে পুরনো সম্পর্কের মানুষের সঙ্গে যৌন সংসর্গটি পুরোপুরি ত্যাগ করেন।

সমীক্ষায় আরও একটি চমকপ্রদ তথ্য আছে। ২১ শতাংশ মানুষই এই অবস্থায় পুরনো যৌন অভ্যেস পাল্টান। যদিও ৭৪ শতাংশ মানুষ মনে করেন তাঁদের নতুন অ্যাফেয়ারে যৌনতার স্বাদ পুরনো সংসর্গের থেকে ভাল।

ইল্লিসিট এনকাউন্টারস এর মুখপাত্র ক্রিশ্চিয়ান গ্রান্ট বলছেন, ‘‘তাহলে দেখা যাচ্ছে, অ্যাফেয়ারে জড়িয়ে থাকার নেশা একজন মানুষের জীবনে নতুন উত্তেজনা তৈরি করে। শুধু জীবনসঙ্গী নয়, দ্বিতীয় মানুষটির কাছেও তার ভাবমূর্তি অটুট থাকে।’’

তাহলে শেষতক মনোবিদ্যার আদিবাক্যটিই মান্যতা পাচ্ছে— বেশির ভাগ মানুষই স্বভাবগত বহুগামী!