ডোকলামে বাড়ছে উত্তেজনা।  যুদ্ধ যুদ্ধ পরিস্থিতি জিইয়ে রেখেছে চিন। তার মধ্যেই চিনা বিমান সংস্থা চায়না ইস্টার্ন এয়ারলাইন্স ভারতীয় যাত্রীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ। সাংহাই পুডং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক ভারতীয় যাত্রী দুর্ব্যবহারের শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। বিষয়টি চিনা বিদেশ মন্ত্রক ও পুডং বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক। বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের নজরেও বিষয়টি আনা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট যাত্রীর অভিযোগের অব্যবহিত পরেই চিনা বিমান সংস্থা সব অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়েছে। তাদের দাবি, সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হয়েছে। আর ভিডিও ফুটেজে দেখা গিয়েছে, ওই ভারতীয় যাত্রীর অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। বিমান কর্মীরা মোটেও যাত্রীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেননি। যথেষ্ট ভাল ব্যবহারই করা হয়েছে।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

জানা গিয়েছে, অভিযোগকারী যাত্রী নর্থ আমেরিকান পঞ্জাবি অ্যাসোসিয়েশনের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর। তাঁর নাম সতনাম সিংহ চাহাল। বিদেশমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে তিনি বলেন, চায়না ইস্টার্ন এয়ারলাইন্সের যে গেট দিয়ে হুইলচেয়ারে বসা যাত্রীদের বের করা হয়, সেখানকার গ্রাউন্ড স্টাফরা ভারতীয় যাত্রীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছে, ৬ তারিখ দিল্লি থেকে ওই বিমানসংস্থার উড়ানে চড়ে তিনি সান ফ্রান্সিসকো যাচ্ছিলেন।

পথে সাংহাই পুডংয়ে নেমে ওই সংস্থারই অন্য বিমান ধরে গন্তব্যে যাওয়ার কথা বলা হয়। এ নিয়ে অভিযোগ করতে গেলে বিমান সংস্থার কর্মীরা তাঁর উপরে চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করেন। তাঁদের শরীরী ভাষা দেখে সতনামের মনে হয়েছিল, ডোকালাম নিয়ে ভারত-চিন অশান্তির প্রভাব পড়েছে।