মাদক এবং মদ্যপানে নিজের আসক্তি সম্পর্কে খোলাখুলি জানালেন ডেমি লোভাটো। ড্রাগের নেশা ছাড়াও বাইপোলার ডিজ-অর্ডার এবং খাওয়াদাওয়ার সমস্যাতেও ডেমি ভুগেছেন দীর্ঘদিন। শেষ পর্যন্ত লড়াই করে বেরিয়ে আসতে পেরেছেন তিনি। তার জন্য অবশ্য বহুদিন রিহ্যাবে কাটাতে হয়েছিল তাঁকে। ১৮ বছর বয়সে চিকিত্সা শুরু করান ডেমি। তাঁর মা এবং ঠাকুমা দু’জনেই বুলিমিয়ায় ভুগতেন। ‘‘অনিয়মিত এবং অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসের মধ্যে দিয়ে বড় হয়েছি। 
১৮ বছর না পেরোতেই এমন বিপদে পড়লাম...ভাবিনি কোনওদিন এখান থেকে বেরোতে পারব! জীবন এত দ্রুত গতিতে চলছিল, মনে হচ্ছিল ২১ বছরের মধ্যেই ফুরিয়ে যাবে,’’ বলেছেন ডেমি।

পছন্দ-সই
ম্যাথু ম্যাককনহের এক সময়ের ‘ব্যথা’ ছিলেন সারা জেসিকা পার্কার। ২০০৬ সালের রোমান্টিক কমেডি ‘ফেলিওর টু লঞ্চ’এ দু’জনে কাজ করেছিলেন একসঙ্গে। তখন থেকেই সারা’তে মজেছিলেন ম্যাথু। এমনকী, নায়িকাকে সোজাসুজি জানিয়েও দিয়েছিলেন সে কথা। ‘‘প্রথম দিনের শ্যুটিং‌ ছিল না শেষ দিনের, সেটা এখন আর মনে নেই। তবে সারাকে বলে দিয়েছিলাম মনের কথা,’’ এতদিন পর খোলসা করেছেন ম্যাথু। অবশ্য পরবর্তীকালে সত্যিকারের ভালবাসা খুঁজে পেয়েছিলেন ক্যামিলা আল্‌ভের মধ্যে। ছ’বছর প্রেম করার পর যাঁকে বিয়ে করেছেন ২০১২ সালে।

নেপথ্যে নায়ক
মঞ্চ এবং পরদা ছেড়ে এবার ক্যামেরার পিছনে যেতে চলেছেন মাইকেল শিন। জেফ জেনসনের গ্রাফিক নভেল ‘গ্রিন রিভার কিলার’ থেকে ক্রাইম থ্রিলার তৈরি করতে চলেছেন অভিনেতা। আমেরিকার কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার গ্যারি রিজওয়েকে নিয়ে গল্প। ‘‘ছবিটা ডার্ক। কিন্তু তার মধ্যে থেকে আশার আলো খুঁজে পাওয়া নিয়েই এগিয়েছে গল্প,’’ 
বলছেন মাইকেল।