ব্রাজিল থেকে খালি হাতে ফিরেছিলেন দীপা। কিন্তু তুরস্ক থেকে ফিরছেন সোনার পদক নিয়ে। অলিম্পিকে আশা পূর্ণ হয়নি। গোটা ভারতের আশার চাপ নিয়ে অল্পের জন্য পদক ছাড়াই ফিরতে হয়েছিল রিও অলিম্পিক থেকে।

প্রায় দু’বছর কোনও প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারেননি দীপা। চোটের জন্য দীর্ঘ বিশ্রামের পরে তুরস্কে ওয়ার্ল্ড চ্যালেঞ্জ কাপে আর্টিস্টিক জিমন্যাস্টিকে সোনা জিতলেন ত্রিপুরার বাসিন্দা দীপা কর্মকার। কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে ১৩.৪০০ স্কোর করে প্রথম হন দীপা। এর পরে চূড়ান্ত পর্বে তাঁর সংগ্রহ ১৪.১৫০ পয়েন্ট।

বিম ব্যালেন্স বিভাগেও সাফল্য পেয়েছে দীপা। ১১.৮৫০ পয়েন্ট পেয়ে তৃতীয় হন দীপা। 

রিও থেকে ফেরার পরে পরেই চোট পান দীপা। অ্যান্টেরিয়র ক্রুসিয়েট লিগামেন্টে চোট পাওয়ার পরে অপারেশন হয় দীপার। এর পরে কমনওয়েলথ গেমস-এও যেতে পারেননি দীপা।