প্রথম দু’ম্যাচের পরেই বেআব্রু ইস্টবেঙ্গল। কার্যত বিনা স্ট্রাইকারে কলকাতা লিগ অভিযানে নেমেছে সুভাষ ভৌমিক ব্রিগেড। ক্লাবে উঠে গিয়েছে ‘সুভাষ হঠাও’ স্লোগান। খলনায়ক বেছে ফেলা হয়েছে বালি গগনদীপকে। যদিও মিনার্ভা পঞ্জাবে অন্য ফর্মেশনে খেলতে অভ্যস্ত ছিলেন গগনদীপ।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

স্ট্রাইকার সমস্যায় ভুগতে থাকা ইস্টবেঙ্গলে এবার আরও বিপাকে। কার্যত চূড়ান্ত হয়ে যাওয়া আর্জেন্টিনীয় স্ট্রাইকার লুকাস গোমেজ কোস্টারিকা থেকে জানিয়ে দিলেন তিনি ইস্টবেঙ্গলে খেলবেন না। মেসির দেশের স্ট্রাইকার দীর্ঘদিন কোস্টারিকার বাসিন্দা। তাঁর স্ত্রী ও সন্তানরাও কোস্টারিকার। কোস্টারিকার বিভিন্ন ক্লাবে খেলার সূত্রে বিশ্বকাপার জনি অ্যাকোস্টার সঙ্গেও তাঁর পূর্ব পরিচিতি রয়েছে।

এই কারণেই ইস্টবেঙ্গল কর্তৃপক্ষ চেয়েছিলেন জনি অ্যাকোস্টা-লুকাস গোমেজের বোঝাপড়াকে কাজে লাগাতে। তবে এর মাঝেই খবর লুকাস আসছেন না ভারতে। লুকাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, এবেলা.ইন-কে তিনি জানিয়ে দেন, ‘‘আমি ভারতে আসছি না। ক্লাব সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমাকে সই করাবে না।’’ নেপথ্য কারণ কী? লুকাস জানিয়ে দেন, ‘‘আমি জানি না। শুধু এটাই জানি ইস্টবেঙ্গল আমার জন্য আগ্রহী নয়।’’

ইস্টবেঙ্গল সচিব রজত গুহও জানিয়ে দেন, ‘‘আর্জেন্টেনীয় স্ট্রাইকার লুকাসের বায়োডেটা পছন্দ হয়নি। আমরা আরও ভাল স্ট্রাইকারের সন্ধানে রয়েছি। কথাবার্তা চলছে। খুব শীঘ্রই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব। কলকাতা লিগেই দেখতে পাওয়া যাবে নতুন স্ট্রাইকারকে।’’

কত তাড়াতাড়ি লাল-হলুদ জার্সিতে খেলতে দেখা যাবে নতুন স্ট্রাইকারকে, সেই দিকেই তাকিয়ে সমর্থকরা।