প্যালেস্টাইন ফুটবল সংস্থার প্রধান জিব্রিল রাজৌবকে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হল ফিফার পক্ষ থেকে। বিশ্বকাপের ঠিক আগেই ইজরায়েল ও প্যালেস্টাইন-এর মধ্যে নির্ধারিত প্রীতি ম্যাচকে কেন্দ্র করে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে। খেলা ও রাজনীতিকে মিশিয়ে দেওয়ার জন্যই শাস্তি পেতে হচ্ছে জিব্রিল রাজৌবকে।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

বিশ্বকাপের আগে হাইফা-তে ইজরায়েল বনাম প্যালেস্টাইন ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। পরে তা সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় বিতর্কিত জেরুজালেমে। তখনই প্রতিবাদে সরব হয় প্যালেস্টাইন। সেই সময় প্যালেস্টাইন ফুটবল সংস্থার প্রধান জিব্রিল রাজৌব হুংকার ছেড়েছিলেন, মেসি যদি প্রীতি ম্যাচ খেলেন, তাহলে যেন তাঁর লেখা সব জার্সি পুড়িয়ে দেওয়া হয়। এমন ঘটনার প্রেক্ষিতে ছিল ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত ঘোষণা। ঠিক তার আগেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইজরায়েলে তাঁদের দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরিত করে।  

ফিফা শনিবার এক বিবৃতিতে জানায়, রাজৌবের কথায় ঘৃণা ও হিংসা প্রকাশ পেয়েছে। তাই তাঁকে ১২ মাসের জন্য সাসপেন্ড করার পাশাপাশি ২০ হাজার মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। নির্বাসন চলাকালীন কোনও আন্তর্জাতিক অথবা ক্লাব পর্যায়ের ম্যাচ, প্রচার সংক্রান্ত কাজে থাকতে পারবেন না তিনি। যদিও প্যালেস্টাইন ফুটবল সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়, লঘু পাপে গুরু দণ্ড দেওয়া হয়েছে রাজৌবকে। কারণ, তাঁর অপরাধ প্রমাণিত নয়।

বিশ্বকাপের আগে শেষ প্রীতি ম্যাচে আর্জেন্টিনা অবশ্য খেলতে পারেনি ইজরায়েলের বিরুদ্ধে। রাজনৈতিক উত্তাপ বাড়তে থাকায় আর্জেন্টিনা ফুটবল সংস্থা ম্যাচ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়।