‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’-র স্বপ্ন দেখছেন নরেন্দ্র মোদী। আর সেই স্বপ্নকে সত্যি করতে দেশের আরও বেশি মানুষের হাতে ডিজিটাল সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দেওয়া দরকার। আর সেটা করতে হলে স্মার্টফোনকে আরও সস্তা করতেই হবে। সেই লক্ষ্যে সাধারণ বাজেটে স্মার্টফোন সস্তা করার মতো পদক্ষেপ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী করতে পারেন বলে মনে করছেন ক্রেতারা। সেই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিল্পমহল এবং বিক্রেতারাও।

জেটলি গত বছরের সাধারণ বাজেটে অল্প হলেও শুল্ক বাড়িয়েছিলেন স্মার্টফোনের উপরে। কিন্তু এবার সেটা না করে উল্টে কমাতে পারেন শুল্ক। এমনটাই আশা। আগামী সোমাবার ২৯ ফেব্রুয়ারি অরুণ জেটলি সাধারণ বাজেট পেশ করবেন। সেখানে মোদীর ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’-র স্বপ্নই শুধু নয়, সেই সঙ্গে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ স্লোগানও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী মাথায় রাখবেন বলে আশা করা হচ্ছে। আর তাতে দেশীয় মোবাইল শিল্প বাড়তি কিছু সুযোগ পেতে পারে। এই শিল্পে ‘স্টার্ট আপ’ সংস্থাও অতিরিক্ত সুযোগ পেতে পারেন। আর এই সব আশা পূরণ হলেই স্মার্টফোন সস্তা হওয়ার আশা সত্যি হবে।

মোবাইল শিল্পের সঙ্গে যুক্তরা বলছেন, ‘‘মোবাইল তৈরির যন্ত্রপাতির উপর থেকে শুল্ক হ্রাস পেলেও কমবে স্মার্টফোনের দাম।’’ অনেকে বলছেন, শুধু ফোনের দাম কমাই নয়, টেলিকমে শুল্ক হ্রাসও করতে পারেন জেটলি। তাতে মোবাইল বিল এবং ইন্টারনেট খরচও কমবে। 

গ্রামাঞ্চলে ছাত্রছাত্রীদের হাতে কম্পিউটার পৌঁছে দেওয়ার থেকে সহজ স্মার্টফোন পৌঁছে দেওয়া। কারণ, সেটি তুলনায় সস্তা। তাই মোদীর স্বপ্ন সফল করতে স্মার্টফোন সস্তা করার পথেই হাঁটবেন কি জেটলি? তার জন্য অবশ্য আগামী সোমবার দুপুর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।