প্রয়াত হলেন জাতীয় দলের প্রাক্তন ফুটবলার সুকল্যাণ ঘোষ দস্তিদার। দীর্ঘদিন মোহনবাগানের হয়ে সুনামের সঙ্গে খেলেছেন তিনি। ১৯৭০ সালের এশিয়ান গেমসে শেষ বার ব্রোঞ্জজয়ী ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন তিনি। ইস্টবেঙ্গলে খেলেছেন একবছর। 

প্রাথমিক পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। বয়স হয়েছিল সত্তরের কাছাকাছি।

চলে গেলেন সুকল্যাণ (একেবারে ডানদিকে)। ফাইল চিত্র

স্ট্রাইকার পজিশনে খেলতেন সুকল্যাণ। দূরপাল্লার জোরালো শটের জন্য বিখ্যাত ছিলেন তিনি। টাইব্রেকারে প্রথম শট মারতে সব সময় তাঁর ডাক পড়ত। ১৯৬৯ সালের আইএফএ শিল্ডের ফাইনালে ইস্টবেঙ্গলকে ৩-১ ব্যবধানে হারাতে বড় ভূমিকা নেন সুকল্যাণের। প্রণব গঙ্গোপাধ্যায়ের পাশাপাশি গোল করেন তিনি। 

ভারতীয় দল এবং মোহনবাগানে তাঁর সতীর্থ শ্যাম থাপা বলেন, ‘‘মাঠের মধ্যে যেমন ভাল ফুটবল খেলতে, মাঠের বাইরেও সে রকম ভাল মানুষ ছিল। খুব ভাল শট মারতে পারত।’’

সুকল্যাণবাবুর এক মেয়ে বিদেশে থাকেন। তিনি ফিরলেই সম্ভবত ঠিক হবে তাঁর মরদেহ মোহনবাগান ক্লাবে কখন নিয়ে যাওয়া হবে।