তিনিই ছিলেন নম্বর ওয়ান। ছিলেন বহু ভক্তের হার্টথ্রবও। এই তারকার শটের জাদুতে কাঁপত কোর্ট। জিতেছেন বহু ট্রফি। কিন্তু তাঁর জীবনেই নেমে এল ঘোর দুঃসময়।

দেউলিয়া হয়ে নিজের জেতা ট্রফিগুলিই অনলাইনে বেচে দিচ্ছেন জার্মান টেনিস তারকা বরিস বেকার।

গত বছরই ব্রিটেনের একটি কোর্ট তাঁকে দেউলিয়া ঘোষণা করেছে। তার পরেই বরিস অনলাইন নিলামে তুলেছেন ৮১টি ট্রফি ও ব্যবহৃত সামগ্রী। তার মধ্যে রয়েছে উম্বলডন ও ইউএস ওপেনে জেতা ট্রফিও।

এর মধ্যে মহামূল্যবান হচ্ছে রেনশ কাপের রেপ্লিকা। যেটি বেকার মাত্র ১৭ বছর বয়সে জিতেছিলেন কনিষ্ঠতম খেলোয়াড় হিসেবে। এর দাম উঠেছে ৭ লাখ টাকা।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

প্রাক্তন টেনিস খেলোয়াড় বরিস বেকার। (নিজস্ব চিত্র/ফাইল)

১৯৯৬ সালে এক জোড়া জুতো পরে তিনি খেলেছিলেন। সেই জুতোর দাম শুরু হয়েছে ৪৫ হাজার টাকা থেকে।

কেন এমন অবস্থা হল বরিস বেকারের? বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভুল বিনিয়োগ করে ডুবেছেন তিনি। এছাড়া ২০০০ সালে প্রথম বিবাহ বিচ্ছেদের সময় খোরপোষ বাবদ প্রায় ৯০ কোটি টাকা দিতে হয়েছিল এই প্রাক্তন টেনিস তারকাকে। 

২০০১-এ এক রুশ মডেলের সঙ্গে যৌন সম্পর্কের জেরে সেই মডেল গর্ভবতী হয়ে পড়েন। তাঁর সঙ্গে আদালতের বাইরে মীমাংসা করতে গিয়ে কয়েক কোটি পাউন্ড যায় বেকারের পকেট থেকে।

নাইজেরিয় এক তেল কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেই মূলত ডুবেছেন প্রাক্তন এক নম্বর টেনিস তারকা।