নিজের বোন, কাকিমা তাঁদের সঙ্গেই যৌন সংসর্গে লিপ্ত হয়েছিলেন। নিজের মা-কে হত্যা করা হয়েছিল, নিজের কেরিয়ারের স্বার্থে! বিস্ফোরক এমনই স্বীকারোক্তি শিবা এন জিঘোউয়ের। যা নিয়ে তোলপাড় ফুটবল দুনিয়া।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

ফ্রান্সের ঘরোয়া ফুটবলে যথেষ্ট পরিচিতি মুখ শিবা। লিগা ওয়ানে ২০০১ থেকে ২০০৫ পর্যন্ত ন্যান্তেসের হয়ে খেলেছেন তিনি। রেইমস, ভার্তন, নামুরের মতোও ক্লাবেও খেলেছেন তিনি। ২০০০ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত গ্যাবনের জাতীয় দলের হয়েও নিয়মিত খেলতেন তিনি। ৫টি গোলও রয়েছে তাঁর।

তাঁরই এক ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে ব্রিটেনের জনপ্রিয় প্রচারমাধ্যম ‘ডেইলি স্টার’। সেই ভিডিও-তে দেখা যাচ্ছে, শিবা স্বীকার করছেন, তাঁর নিজের ফুটবল কেরিয়ার প্রলম্বিত করার জন্য তাঁর নিজের মা-কে হত্যা করা হয়েছিল।

এখানেই না থেমে শিবা আরও জানিয়েছেন, একাধিক সমকামী সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। নিজের বোন, কাকি-কেও যৌনসঙ্গী বানাতে দ্বিধা করেননি। সেই ভিডিও-তেই গ্যাবনিস বংশোদ্ভূত ফরাসি ফুটবলারকে বলতে শোনা গিয়েছে, তাঁর আসল বয়স হল ৩৯। তাঁর জন্ম সংশাপত্রে তাঁর বাবা-মা’ই ভুল লিখেছিল জন্মতারিখ।

আপাতত শিবার এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ব্যাপক চর্চার মধ্যে রয়েছেন নামি এই ফুটবলার।