জনপ্রিয় সিরিজ ‘গেম অফ থ্রোন্‌স’এর দৃশ্য কি না পর্নোগ্রাফি! তা-ও একটি পর্ন ওয়েবসাইটের দেওয়ালে? সিরিজ জুড়ে যৌনতা আর নগ্নতার ছড়াছড়ি যদিও। কিন্তু গপ্পোও তো রয়েছে একটা, নাকি! তা বলে পর্ন ওয়েবসাইট আপন করে নেবে? তাই সিরিজের প্রযোজক চ্যানেল ‘এইচবিও’ সটান দিয়েছে মামলা ঠুকে, ওই ওয়েবসা‌ইটের বিরুদ্ধে। স্বত্ব নেওয়া নেই, প্রাসঙ্গিকতা নেই, বলা-কওয়া নেই— দুম করে কারও কীর্তি নিজের বলে চালিয়ে দেওয়া যায় নাকি! তার উপর সিরিজ থেকে বেছে বেছে কয়েকটি বিতর্কিত দৃশ্য নিয়েই ক্ষান্ত দেননি ওই ওয়েবসাইটের কর্মীরা। লর্ড ভ্যারিস, সার্সেই ল্যানিস্টার এবং দিনেরিস’কে নকল করে (প্যারোডি) শো’এর মান খাটো করার চেষ্টাও করেছেন বলে অভিযোগ ‘এইচবিও’র। ওয়েবাসাইট থেকে যত তাড়াতাড়ি নিজেদের ‘কনটেন্ট’ সরিয়ে ফেলা যায় এবং কপিরাইট মামলা দায়ের করে ক্ষতিপূরণও নিয়ে ফেলা যায়— সেই চেষ্টাই করছে ‘এইচবিও’।

সুপারহিরোইন

ক্যাপ্টেন মার্ভেল হতে পারেন ব্রি লার্সন! ‘মার্ভেল কমিক্‌স’এর অন্যতম জনপ্রিয় চরিত্র ক্যাপ্টেন মার্ভেলকে নিয়ে এই প্রথমবার একটি সুপারহিরো ছবি তৈরি হতে চলেছে, যেখানে প্রধান চরিত্র একজন মহিলা। এই চরিত্রের জন্য এর আগে এমিলি ব্লান্ট এবং অলিভিয়া ওয়াইল্ডের কথা ভাবা হয়েছিল। কিন্তু নির্মাতারা এখন চাইছেন ব্রি’কেই। অভিনেত্রীর সঙ্গে এই নিয়ে কথাবার্তাও এগোচ্ছে। এবং শোনা যাচ্ছে, ব্রি’য়ের উৎসাহও নেহাত কম নয়। এই মুহূর্তে ছবির স্ক্রিপ্ট লিখছেন ‘ইনসাইড আউট’ ছবির লেখক মেগ লেফভ এবং নিকোল পার্লম্যান। তবে পরিচালনা কে করবেন, সেটা এখনও ঠিক হয়নি। 

ভিডিও গেম যখন ফিল্ম

ভিডিও গেম থেকে ছবি। আর সেই ছবিতেই অভিনয় করছেন জেক গিলেনহাল। ছবির নাম ‘দ্য ডিভিশন’। এই নামেই গেমটি লঞ্চ করেছিল ‘ইউবিসফ্ট’ সংস্থা। জেক শুধু অভিনয়ই করছেন না, ছবির অন্যতম প্রযোজকও তিনি। আরেক প্রযোজক ‘রেড স্টর্ম এনটারটেনমেন্ট’। প্লট খানিকটা এই রকম— স্মলপক্স মহামারীর মতো ছড়িয়ে পড়ে ভবিষ্যতের নিউ ইয়র্কে। সেই ডিস্টোপিয়ান দুনিয়াই এই ছবির প্রেক্ষাপট। সেখানেই একজন শ্যুটারের ভূমিকায় জেক। যে প্রায় মৃত ম্যানহাটানে অপরাধমূলক কাজকর্ম দমন করে। তবে প্রযোজনা সংস্থা থেকে আরেকজন অভিনেতারও খোঁজ করা হচ্ছে। দ্বিতীয় অভিনেতা চূড়ান্ত হয়ে গেলেই শুরু হয়ে যাবে ছবির কাজ।

মদ, জনি ও রিহ্যাব

এতদিন ়়ধরে অ্যাম্বার হার্ড বলছিলেন, তিনি গার্হস্থ্য হিংসার শিকার। তাই নিয়ে বিতর্কের রেশ কাটতে না কাটতেই জানা গেল জনি ডেপের বন্ধুরা তাঁকে পরামর্শ দিয়েছেন রিহ্যাবে যাওয়ার! কেন? না, বিচ্ছেদের ‘দুঃখ ভুলতে’ জনি নাকি প্রচুর মদ্যপান করছেন। শুধু তাই নয়, গভীর রাতে একটি পাব’এ তাঁকে দেখা গিয়েছে এক ব্রুনেট মহিলার সঙ্গে পার্টি করতেও। এই মুহূর্তে জনি নিজের ব্যান্ড নিয়ে হলিউড ভ্যাম্পায়ার্স ইউরোপিয়ান ট্যুর করছেন। বন্ধুদের বক্তব্য, এত অনিশ্চয়তার মধ্যে ট্যুর না করলেও পারতেন তিনি। জনির বিরুদ্ধে অ্যাম্বার অভিযোগ আনার পর থেকেই নাকি খানিক বেসামাল হয়ে পড়েছেন নায়ক। ‘রিস্ট্রেনিং অর্ডার’ এবার মদের থেকেও পেলেন বলে!