গুরুজনে বলেন, যে ধরে খেলতে জানে, সে-ই আসল খেলোয়াড়। ধরে রাখাতেই নাকি পৌরুষের পরিচয়। ‘উড়ে গিয়ে ফুরিয়ে গেল’— এ অন্তত শরীরের স্ফুলিঙ্গ জ্বালাতে মোটেই আনন্দের ব্যাপার নয়।

আপনি বীরেন্দ্র সহবাগ না রাহুল দ্রাবিড়? গুণ্ডাপ্পা বিশ্বনাথ না এম এল জয়সীমা? শরীরী খেলার বাইশ গজে আপনি কতটা টেম্পারামেন্ট রেখে ধীরে ধীরে অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবেন, এন্ড অব দ্য ডে, মানে এই ক্ষেত্রে রাতের শেষে, তা-ই বলে দেবে স্কোর খাতায় আপনার নামের পাশে কত রান লেখা হল!

একটি ‘ডুরেক্স’-এর ‘ফেস অফ গ্লোবাল সেক্স’ সমীক্ষা বলছে, এই ক্ষেত্রে সবচেয়ে উপরে আছে নাইজেরিয়া আর গ্রিস। সেদেশের যুগলেরা সবচেয়ে বেশি সময় ধরে মিলনে মেতে থাকতে পারেন। ঘড়ি ধরে মাপলে গড়ে ২১ মিনিটেরও বেশি।

সবচেয়ে কম সময়েই খেলা ফুরোয় ভারতীয় আর ফরাসিদের ক্ষেত্রে। গড়ে ১৩ থেকে ১৫ মিনিট।

দেখুন ম্যাপ—

গ্রাফিক্স: বিশ্বজিৎ দাস

মানুষের যৌন আচরণের হাল-হকিকত বুঝতে বছর কয়েক আগে ‘ডুরেক্স’-এর উদ্যোগে দু’টি সমীক্ষা চালানো হয়। পৃথিবীর অনেকগুলি দেশ থেকেই তথ্য নেওয়া হয়। সম্প্রতি আরেকটি সমীক্ষাও চালায় একটি আন্তর্জাতিক ডেটিং সাইট। দেখা যাচ্ছে, ফলের বিশেষ হেরফের হয়নি। কাজেই ভারতীয় পুরুষ, ধরে খেলুন। ধরে রাখুন।