তিনি বিতর্কিত। কিন্তু তা নিয়ে বিন্দুমাত্র ভাবিত নন হাসিন জাহান। বৃহস্পতিবার দুপুরে এবেলা.ইন-এর দফতরে দেখা মিলল সেই চেনা সাহসিনীর। দেখা গেল হাসিন আছেন হাসিনেই।  একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্যে জয় করলেন ফেসবুক। প্রায় আধঘণ্টার ফেসবুক লাইভে তিনি যা বললেন তাতে উঠে এল তাঁর এযাবৎ জীবন কালের লড়াইয়ের কাহিনি। শুরু করলেন প্রথম বিয়ের অভিজ্ঞতা দিয়ে।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

‘‘ঘরোয়া মেয়ে ছিলাম। আমারও পরিবার ছিল। দুর্ভাগ্যবশত, আমার সঙ্গেই এমন হল। অল্প বয়সে না বুঝে ভুল করেছিলাম। ষোলো বছরেই দিদির সঙ্গে কথা কাটাকাটি হওয়ার ফলে বিয়ে করে ফেলেছিলাম। এটা আমার লাইফের সবথেকে বড় ভুল ছিল। সামান্য একটা কাগজে সই করে দিলে যে মারাত্মক ভুল হতে পারে, তা এখন বুঝছি।

প্রথম বিয়ে ন’বছর টেকার মতো ছিল না। দুই পরিবারের স্টেটাস ছিল আলাদা। তাই ইগোর প্রবলেম ছিল। এক্স হাজব্যান্ডের ফ্যামিলি ঠিক শহুরে ছিল না। অথচ আমাদের ফ্যামিলি ছিল এডুকেডেট ও শহুরে।

ছোটবেলা থেকেই পড়াশোনা ও খেলাধুলো— দুই বিভাগেই খুব ভাল ছিলাম। জীবনের নির্দিষ্ট  অ্যাম্বিশন ছিল। কিন্তু বিয়ে করার পরে উপলব্ধি করি, আমার সমস্ত উচ্চাকাঙ্ক্ষাই শেষ হয়ে গিয়েছে। জীবনে বদলে গিয়েছিল টিপিক্যাল হাউজওয়াইফ-এ।

এক্স শ্বশুরবাড়ির এক্সপেকটেশন ছিল, আমাদের বাড়ি যাতে ওঁদের আর্থিক দায়িত্ব নেয়। এভাবে চলা আমার পক্ষে সম্ভব হচ্ছিল না।’’

এর পরে আলোচনা গড়াল বহু আলোচিত সামির সঙ্গে সংসার যাপনের ইতিবৃত্তে। পুরো সাক্ষাৎকার দেখতে নীচের ভিডিও দেখুন—