অমৃতা সিংহের সঙ্গে সেফ আলি খানের বিয়ে হয়েছিল ১৯৯১ সালের অক্টোবরে। সেফ আলির তখন ২০ বছর বয়স। আর অমৃতা সিংহ তখন তিরিশোর্ধ্ব। এই অসম বয়সের বিয়ে নিয়ে বলিউডে হইচই শুরু হয়ে গিয়েছিল। কারণ, তার কিছুদিন আগে পর্যন্ত রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে জোর প্রেমে চালিয়ে গিয়েছিলেন অমৃতা। ১২ বছরের বড়ো অমৃতাকে পুত্রবধূ হিসেবে মেনে নেননি শর্মিলা ঠাকুর এবং মনসুর আলি খান পতৌদিও।

অমৃতার সঙ্গে সেফের বিবাহিত জীবনে দুই সন্তানের জন্ম হয়েছে। সেফ-অমৃতার প্রথম সন্তান সারার জন্ম হয়েছিল ১৯৯৩ সালের সেপ্টেম্বরে। ইব্রাহিম আলি খান তাঁদের দ্বিতীয় সন্তান। ইব্রাহিমের জন্ম ২০০১ সালে।  

কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চলতি বছরে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেছেন সারা আলি খান। বর্তমানে সিনেমায় নামার তোড়জোড় করছেন সারা। শোনা যাচ্ছে সারা নাকি শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ানের বিপরীতে নায়িকা হচ্ছেন। কিন্তু, এই নিয়ে এখনও কোনও ঘোষণা হয়নি। ইব্রাহিম আলি খান এই মুহূর্তে ১৬ বছরের। সে এখনও স্কুল ছাত্র।  

আরও পড়ুন... 

‘ভাই’ হয়েছে! কীভাবে ‘সেলিব্রেট’ করলেন সইফের প্রথম পক্ষের মেয়ে সারা? 

প্রকাশ পেল সেফ-করিনার ছেলের প্রথম ছবি। ক্লিক করে দেখে নিন সেই ছবি 

মা হলেন করিনা! কী বললেন সইফ?

সেফ ও করিনার ছেলে তৈমুরের সঙ্গে সারা ও ইব্রাহিমের বয়সের ব্যবধান অনেকটাই। তৈমুর তার দিদি সারার থেকে ২০ বছরেরও বেশি ছোট। দাদা ইব্রাহিমের সঙ্গে তৈমুরের বয়সের ব্যবধান ১৬ বছরের। সুতরাং, বোঝাই যাচ্ছে সারা ও ইব্রাহিম দিদি-দাদা হলেও তৈমুরের থেকে তাঁদের যা বয়সের ব্যবধান তাতে তাঁরা অভিভাবক বলেই ভবিষ্যৎ-এ গণ্য হবেন।