মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চিন— এখনও পর্যন্ত এই তিন দেশে থেকেই মহাকাশচারীদের পা পড়েছে মহাশূ্ন্যে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাতে উদ্যত হয়েছে ভারত।

চলতি বছরের স্বাধীনতা দিবসে তাঁর ভাষণে এমনটাই ঘোষণা করেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২০২২ সালের মধ্যেই ভারতীয় কোনও মহাকাশচারী ভেসে বেড়াবেন মহাশূ্ন্যে। 

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, ‘গগনযান’ নামে সেই মিশনে তিনজন ‘ক্রিউ’ থাকবে। মঙ্গলবার এমনটাই জানিয়েছেন ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশন (ইসরো)-এর চেয়ারম্যান কে শিবান। 

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

কে সিবান আরও জানিয়েছেন, ভারতের ৭৫তম স্বাধীনতা দিবসের ছ’মাস আগেই গগনযান অভিযান সম্পন্ন করা হবে। GSLV Mk-III লঞ্চ ভেহিক্যাল ব্যবহার করা হবে এই মিশনের জন্য। 

ইসরোর তরফ থেকে আরও জানা গিয়েছে যে, মাত্র ১৬ মিনিটেই গগনযান পৌঁছে যাবে পৃথিবীর অক্ষরেখায়। এবং অবতরণের সময় তা নেমে আসবে আরব সাগর বা বঙ্গোপসাগরে।

এই মিশনের জন্য তিনজন মহাকাশচারীকে প্রস্তুতি নিতে হবে দুই থেকে তিন বছর। মহাকাশে তাঁদের থাকতে হবে পাঁচ থেকে সাত দিন। এবং তাঁদের নির্বাচন করবে ভারতীয় বায়ু সেনা ও ইসরো যুগ্মো ভাবে। 

প্রসঙ্গত, ভারতের প্রথম মহাকাশচারী ছিলেন রাকেশ শর্মা। রাশিয়ার সঙ্গে যৌথ এক মিশনে তিনি মহাকাশে পাড়ি দিয়েছিলেন ১৯৮৪ সালে। তাঁর সঙ্গেও কথা বলা হবে এই মিশনের জন্য, জানিয়েছে ইসরো।