শুধু রেলের উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা নন, ভারতীয় রেলের রাজকীয় কোচে যাত্রা করার সুযোগ পাবেন এবার সাধারণ মানুষও। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে এমনই জানিয়েছে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ।

দেখে নিন সেই টুইট—

শুক্রবার ৩০ মার্চ ‘ওল্ড দিল্লি’ স্টেশন থেকে কাটরাগামী জম্মু মেল ট্রেনের সঙ্গে বিশেষ পরিষেবা যুক্ত এই স্যালোঁ কোচটি যুক্ত করা হয়। এই বিশেষ কোচে রয়েছে দুটি এয়ার কন্ডিশন্ড বেডরুম। যার সঙ্গে রয়েছে লাগোয়া বাথরম। একটি লিভিং রুম, ডাইমিং রুম, রান্না করার সমস্ত সুবিধা এবং অনবরত বাইরের দৃশ্য দেখার জন্য একটি সুবিশাল জানালা। এছাড়া, যাত্রীদের সুবিধার্থে কামরায় দু’জন রেল কর্মীও উপস্থিত থাকবেন। কোচটির মূল্য ২ লক্ষ টাকা।

ভারতীয় রেলের ওয়েবসাইট ‘আইআরসিটিসি.কো.ইন’-এ গিয়ে এই বিশেষ কোচের টিকিট বুক করা যাবে। এই বিষয়ে আইআরসিটিসি অর্থাৎ ইন্ডিয়ান রেলওয়ে ক্যাটারিং অ্যান্ড ট্যুরিজম কর্পোরেশন-এর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন যে, বিলাসবহুল হোটেলের সমস্ত পরিষেবা এই স্যালোঁ কোচে উপলব্ধ। এমনকী, এই কামরাকে তাঁরা ‘মুভিং হাউস’ অর্থাৎ চলন্ত বাড়িও বলেছেন।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

এই বিশেষ যাত্রার সময়সীমা ৪ দিন। অর্থাৎ, ২ লক্ষ টাকায় ৪ দিনের জন্য রাজকীয় পরিষেবা পাবেন যাত্রীরা। ২ এপ্রিল আবার দিল্লি ফিরে আসবে কোচটি। যাত্রীদের জন্য চালু এই বিশেষ কোচের প্রথম যাত্রী ছিলেন ছয় জন।

‘‘এতদিন পর্যন্ত শুধুমাত্র ভারতীয় রেলের উচ্চ পদস্থ আধিকারিকদের জন্যই বরাদ্য ছিল এই পরিষেবা। তবে এখন থেকে যাত্রীরাও উপভোগ করতে পারবেন রাজকীয়তার স্বাদ।’’— দিল্লির ভ্রমণ এবং বাণিজ্য দফতরের সঙ্গে আলোচনা করে এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভারতীয় রেলওয়ে-র চেয়ারম্যান অশ্বিনী লোহানি।

প্রসঙ্গত, ভারতে প্রায় ৬২টি এয়ার কন্ডিশন্ড স্যালোঁ কোচ রয়েছে।