মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে নিয়ে হঠাৎই বিতর্ক। ভারতের প্রাক্তন অধিনায়কের জন্য বিরোধীদের তীব্র আক্রমণের মুখে পড়তে হয় হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুরকে। বিরোধীদের বক্তব্য, ধোনির থাকা-খাওয়ার বন্দোবস্ত করতেই রাজ্যের কোষাগার থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে বিপুল অর্থ। 

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

সরকার অবশ্য বিরোধীদের এহেন অভিযোগে কর্ণপাত করেনি। তবুও কি থামছে ধোনিকে নিয়ে বিতর্ক! পরিস্থিতি অন্য দিকে মোড় নিচ্ছে বুঝতে পেরেই ময়দানে নেমে পড়েছেন হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী। 

সংবাদমাধ্যমের সামনে জয়রাম ঠাকুরকে বলতে শোনা গিয়েছে, হিমাচলে অতিথি হয়ে এসেছেন ধোনি। রাজনীতিক তিনি একেবারেই নন। দেশের প্রাক্তন অধিনায়ক হিসেবে তাঁর নিরাপত্তার দিকটাই দেখা হচ্ছে সরকারের তরফে। ধোনি এসেছেন শ্যুটিংয়ের কাজে। আর এখানে থাকার জন্য যে অর্থ খরচ হচ্ছে, তা সম্পূর্ণ যাচ্ছে ধোনির পকেট থেকেই। 

উল্লেখ্য, বিজ্ঞাপনের কাজের জন্যই হিমাচল প্রদেশে এসেছেন ধোনি। বিশ্বজয়ী অধিনায়কের সঙ্গে রয়েছেন সাক্ষী এবং জিভাও। বিজ্ঞাপনের শ্যুটিং যতদিন চলবে, ততদিন এখানেই থাকবেন তিনি।