বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট দলের অধিনায়ক হয়েও ব্রাত্য থেকে গেলেন বিরাট কোহলি! তাঁর পরিবর্তে আইসিসি’র বর্ষসেরা টেস্ট দলের অধিনায়ক বেছে নেওয়া হল অ্যালেস্টেয়ার কুক’কে। দলে ব্যাটসম্যান হিসাবেও জায়গা হয়নি কোহলির। যদিও ভারতের কাছে টেস্ট সিরিজে বিধ্বস্ত ইংল্যান্ডের চার ক্রিকেটারকে রাখা হয়েছে। দল ঘোষিত হওয়ার পরই তাই তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়েছে।
ভারতের কাছে টেস্ট সিরিজে পরাজয়ের পর নিজের দেশেই প্রবল সমালোচনার মুখে ক্যাপ্টেন কুক। চেন্নাইয়ে শেষ টেস্টে হারের পর কুক নিজেই জানিয়েছিলেন, নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে দেশে ফিরে চিন্তাভাবনা করবেন। অথচ সেই কুক’কেই আইসিসি’র বর্ষসেরা টেস্ট দলের অধিনায়ক নির্বাচন করা হয়েছে। কুক ছাড়াও দলে আছেন ইংল্যান্ডের আরও তিন ক্রিকেটার— জো রুট, জনি বেয়ারস্টো ও বেন স্টোকস। অথচ ব্যাট হাতে অবিশ্বাস্য ফর্মে থাকলেও ১২জনের দলে সুযোগ পাননি কোহলি। ভারতের একমাত্র প্রতিনিধি আর. অশ্বিন।
সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে অনেকেই এই নির্বাচনকে বিদ্রুপ করেছেন। অনেকেই বলেছেন, ‘এটা জোক অফ দ্য ইয়ার’। বিখ্যাত ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মর্গ্যান টুইট করেন, ‘কোহলি নেই এবং কুক আটটি টেস্টে হারের পরেও বর্ষসেরা দলের অধিনায়ক? পুরোটাই তামাশা’। এক ক্রিকেট ভক্তের টুইট, ‘কী করে সম্ভব?’
দল নির্বাচনের দায়িত্বে ছিলেন রাহুল দ্রাবিড়, গ্যারি কার্স্টেন ও কুমার সঙ্গকারা। আইসিসি থেকে জানানো হয়েছে, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ থেকে চলতি বছরের ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে দল নির্বাচন করা হয়েছে। যে সময়ের মধ্যে বর্ষসেরা দলের ছয় ব্যাটসম্যান— কুক, রুট, বেয়ারস্টো, ডেভিড ওয়ার্নার, কেন উইলিয়ামসন, ও অ্যাডাম ভোগ্‌স— প্রত্যেকেই এক হাজারের ওপর রান করেছেন। কোহলি সেই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আট টেস্টে ৪৫১ রান করেছিলেন। কোহলি-ভক্তদের কাছে সান্ত্বনা বলতে, তাঁকে বর্ষসেরা ওয়ান ডে দলের অধিনায়ক করা হয়েছে। ওয়ান ডে দলে আছেন রোহিত শর্মা ও রবীন্দ্র জাডেজাও।