কলকাতা লিগের উত্তেজনা চরমে। আইএফএ-র তরফেও জোড়া মিনি ডার্বিসহ মোহন-ইস্ট মহারণের দিনক্ষণ ঘোষণা করে দিয়েছে। তবে সকলকে চমকে দিয়ে সবুজ মেরুন সমর্থকরা এবার মাঠে ‘নামলেন’ পুলিশি অত্যাচারের প্রতিবাদে। সবুজ মেরুণ সমর্থকদের বিস্ফোরক অভিযোগ, পুলিশি নির্যাতন চরমে পৌঁছেছে। প্রতিবাদ জানাতে তাই রবিবারকেই বেছে নিলেন তাঁরা।

রবিবারের বিকালে ঘরের মাঠে লিগের চতুর্থ ম্যাচে কাস্টমসের বিরুদ্ধে খেলতে নামছে মোহনবাগান। প্রথম তিন ম্যাচে গোলের বন্যা বইয়ে দিয়ে ১৩ গোল করেছে সবুজ মেরুন শিবির। তবে মাঠের বাইরে পুলিশ অকারণে বাগান সমর্থকদের হেনস্থা করছে, এমনটাই অভিযোগ সবুজ মেরুন শিবিরের। তাই ময়দানি ফুটবলে বেনজির বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করতে চলেছে তাঁরা। মোহনবাগানের ফ্যানস ফোরাম ‘অল ইন্ডিয়া মেরিনার্স ফোরাম’ (AIMF) পুলিশের এই অযৌক্তিক এবং অনৈতিক আচরণের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে।

ক্লাবে জমা দেওয়া সেই প্রতিবাদ পত্র — নিজস্ব চিত্র

মেরিনার্সরা পুলিশি অত্যাচারের প্রতিবাদেই দুপুর সাড়ে তিনটে নাগাদ ইডেন গার্ডেন্সের ১৩ নং গেটের বিপরীতে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করল। এমন মাপের কর্মসূচি ময়দানি ফুটবলে সাম্প্রতিককালে দেখা যায়নি। অল ইন্ডিয়া মেরিনার্স ফোরাম-এর অন্যতম সদস্য জয়দীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘‘২০১৭ মরশুমের শুরু থেকেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে মোহনবাগান গ্যালারিতে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীদের একাংশ হঠাতই মোহনবাগান সমর্থকদের প্রতি বিনা প্ররোচনায় রূঢ় এবং অভব্য আচরণ শুরু করেছেন। হ্যান্ড মাইক ব্যবহারে এবং রংমশাল জ্বালানোয় নিষেধাজ্ঞা জারির চেষ্টা করা হচ্ছে এবং মোহনবাগান সমর্থকদের মাঠে এবং মাঠের বাইরে বিভিন্নভাবে হেনস্থা করার ঘটনা ঘটছে। মহিলা সমর্থকদের সাথে ও অভব্য আচরণ করার খবর পাওয়া যাচ্ছে। পুলিশের এই আচরণ অত্যন্ত দু:খজনক। তাই আমাদের এই প্রতিবাদ কর্মসূচি।’’

চিঠি জমা দিতে ক্লাবে সমর্থকরা। —নিজস্ব চিত্র

শুধু প্রতিবাদই নয়, মোহনবাগান-এর এই ফ্যানস ফোরাম ক্লাবকেও গোটা বিষয়টি জানিয়ে অবহিত করেছে। মেরিনার্সদের এর প্রতিনিধি দল আজ সমস্ত ঘটনা জানিয়ে মোহনবাগান ক্লাবকে চিঠি দিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে।

Copyright © 2018 Ebela.in - All rights reserved