মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে কড়া পদক্ষেপ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের।  আর তার জন্য ক্ষতির মুখে পড়তে পারে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। 

আগামী দু’ বছর বিদেশের মাটিতে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলতে নিষেধ করা হয়েছে বাংলাদেশের কাটার-মাস্টারকে। 

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের এই নিষেধাজ্ঞার ফলে আইপিএল-এ অনিশ্চিত হয়ে পড়লেন ফিজ। আর তার ফলে ধাক্কা লাগতে পারে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে। 

মুস্তাফিজ যে কোনও দলের সম্পদ। তাঁর বাঁ হাতের কাটার পড়া প্রায় অসম্ভব ব্যাটসম্যানদের কাছে। তরুণ পেসারের ভবিষ্যৎ আরও উজ্জ্বল করার জন্যই বিসিবি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

বাংলাদেশ বোর্ডের এই সিদ্ধান্তের ফলে ক্ষতির মুখে পড়তে পারে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। উল্লেখ্য, নিলামে মুস্তাফিজকে ২.২ কোটি টাকা দিয়ে কিনেছে মুম্বই। তাদের হয়ে সাতটি ম্যাচ খেলেছিলেন ফিজ। পরের দিকের ম্যাচগুলোয় আর নামতেই পারেননি তিনি। চোটের লাল চোখ দেখতে হয়েছিল বাংলাদেশের তারকা বোলারকে। 

বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি  লিগ খেলতে গিয়েই বারবার চোটের কবলে পড়তে হচ্ছে মুস্তাফিজকে। আর এটাই চিন্তায় রাখছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে। বিসিবি সভাপতি  নাজমুল হাসান পাপন  সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘‘চোটে আক্রান্ত হলে বোর্ড মুস্তাফিজুরকে পুরোদস্তুর সারিয়ে তুলবে। কিন্তু সেরে উঠে জাতীয় দলের হয়ে খেলতে চাইবে না, এটা তো ঠিক নয়। তাই  আগামী দু’ বছর দেশের বাইরে মুস্তাফিজুরকে খেলতে না যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’’ 

বিসিবি সভাপতি মুস্তাফিজের চোটের প্রসঙ্গে আরও বলেন, ‘‘দেশের বাইরে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলতে গিয়েই চোট পাচ্ছে মুস্তাফিজ। সেই কারণে দেশের হয়ে খেলার সুযোগ পাচ্ছে না। এই ব্যাপারটাও ফেলার মতো নয়।’’ 

বিদেশি লিগে খেলতে গিয়ে মুস্তাফিজকে যাতে আর চোটগ্রস্ত না হয়, সেই কারণেই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। চোটমুক্ত থাকলে তবেই দেশের হয়ে সেরাটা দিতে পারবেন অত্যন্ত প্রতিভাবান এই পেসার। পুরোদস্তুর ফিট মুস্তাফিজকে পেলে সুবিধা বাংলাদেশ ক্রিকেটরই। সেই কারণেই মুস্তাফিজকে নিয়ে কড়া অবস্থান নিল বিসিবি।