মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি স্টেট কোর্টের রায়ে আরও বিপাকে জনসন অ্যান্ড জনসন। এই সংস্থার তৈরি ‘ফেমিনাইন হাইজিন’ পাইডারেই ক্যানসার আক্রান্ত হয়েছেন এক মহিলা। এমনটাই রায়ে জানিয়েছে মিসৌরির স্টেট কোর্ট। এর জন্য ৫৫ মিলিয়ন ডলারের আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে জনসন অ্যান্ড জনসনকে।

গ্লোরিয়া রিসটেসান্ড নামে মার্কিনি ওই মহিলার অভিযোগ ছিল বাচ্চাদের কসমেটিকস প্রস্তুতে নামী সংস্থা ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’-এর ‘ফেমিনাইন হাইজিন’ পাউডার ব্যবহার করে ‘ওভারিয়ান ক্যানসার’-এ আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। ৫৫ মিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণের মধ্যে ৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ ধার্য হয়েছে ক্যানসার আক্রান্ত হওয়ার জন্য। বাকি ৫০ মিলিয়ন ডলার ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’-কে দিতে হবে মহিলার শারীরিক অবস্থার অবনতির জন্য।

এই মুহূর্তে এমন আরও ১২০টি মামলা ঝুলছে ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’-এর বিরুদ্ধে। প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ তাদের পাউডার ব্যবহার করে মানুষ যে ক্যানসারে আক্রান্ত হচ্ছে, সেই তথ্য গোপন করার চেষ্টা করছে কোম্পানি। যদিও, ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’-এর দাবি তাদের তৈরি ‘পাউডার’ সম্পূর্ণভাবেই নিরাপদ। এই নিয়ে তাঁদের আইনি লড়াই চলবে বলেই জানিয়েছেন সংস্থার মুখপাত্র ক্যারোল গুডরিচ।

আরও পড়ুন...

সন্তানকে ‘জনসন অ্যান্ড জনসন’-এর পাউডার মাখান? এই খবর পড়ুন

বেবি শ্যাম্পুতে ক্যানসারের বীজ! ঘুরিয়ে স্বীকার করল জনসন অ্যান্ড জনসন?

বাচ্চার জন্য ‘‘জনসন অ্যান্ড জনসন’’ ব্যবহার করেন? তবে এই খবরটি অবশ্যই পড়ুন