‘এখানে ঘৃণা নেই। তাই সকল ভারতবাসী এই জল পুজো করেন।’ মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগেই এমন একটি টুইট করেছেন জাতীয় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী। সঙ্গে দুটি ছবি মানস সরোবরের।

এখনও পর্যন্ত ১০ হাজার লাইক ও প্রায় তিন হাজার রি-টুইট হয়েছে তাঁর পোস্টটি। কমেন্টের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১২০০।

অগস্ট মাসের ৩১ তারিখ কৈলাস ও মানস সরোবরের উদ্দেশ্যে রওনা হন কংগ্রেস সভাপতি। বেড়াতে যাওয়ার পাশাপাশি, রাহুলের উদ্দেশ্য ছিল তীর্থ করাও। যে কারণেই হয়তো টুইটে তিনি লেখেন যে, কৈলাসে তখনই যাওয়া যায় যখন সে কারোকে ডাকে।


মানস সরোবর। ছবি— রাহুল গাঁধীর টুইটার হ্যান্ডেল

মানস সরোবরের শান্ত নীল জল দেখে রাহুল গাঁধী বেশ ভাবাবেগ হয়েই লেখেন যে, ‘এই জল ষে কেউ পান করতে পারে।’ পবিত্র এই স্থানে মানুষের কোনও বিভেদ নেই বলেই ভারতবাসীর কাছে তা পুজিত হয়। 

প্রসঙ্গত, ৩১ অগস্ট সেখানে পৌঁছেই কৈলাস পর্বতের একটি ছবি টুইট করেছিলেন রাহুল গাঁধী। ৪০ হাজারের বেশি লাইক পড়েছে সেই ছবিতে। সেই ছবির ক্যাপশনটি ছিল হিন্দিতে, একটি শ্লোকের চারটি লাইন— 
ওম অসতো মা সদ্‌গময়
তমসো মা জ্যোতির্গময়।
মৃত্যোর্মামৃতম গময়
ওম শান্তিঃ শান্তিঃ শান্তিঃ।।

কংগ্রেস সভাপতির সেই টুইট—