রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের (আরএসএস)তৃতীয় বর্ষ সঙ্ঘ শিক্ষা বর্গের সমারোপে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কে অতিথি করে নজির দেখিয়েছে গত মাসেই। এক মঞ্চ ভাগ করে নিয়েছেন মোহন ভাগবত ও প্রণব মুখোপাধ্যায়। এবার একই ভাবে সঙ্ঘপ্রধান মোহন ভাগবতের সঙ্গে একই মঞ্চে আরএসএস নিয়ে আসতে চায় দেশের প্রথম সারির শিল্পপতি রতন টাটাকে।

আগামী ২৪ অগস্ট আরএসএস-পরিচালিত সংগঠন ‘নানা পালকর স্মৃতি সমিতি’-র একটি অনুষ্ঠানে রতন টাটা উপস্থিত থাকবেন। এখনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না হলেও সূত্রের দাবি, মোহন ভাগবত ও রতন টাটার ওই অনুষ্ঠানের সূচনায় উপস্থিত থাকাটা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে।

মুম্বইতে টাটা মেমোরিয়াল সেন্টারের কাছেই রয়েছে ‘নানা পালকর স্মৃতি সমিতি’-র দশতলা বাড়ি। এই সংগঠন মূলত রোগীদের বিভিন্ন পরিষেবা দিয়ে থাকে। 

উল্লেখ্য, আরএসএস-এর সঙ্গে রতন টাটার ঘনিষ্ঠতা অতীতেও দেখা গিয়েছে। নাগপুরে সঙ্ঘের সদর কার্যালয়েও গিয়েছেন টাটার কর্ণধার। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে সেই নাগপুর সফরের সময়ে মোহন ভাগবতের সঙ্গে সাক্ষাৎও হয় রতন টাটার। কিন্তু এই প্রথম বার কোনও প্রকাশ্য অনুষ্ঠানে এক মঞ্চে পাশাপাশি দেখা যেতে পারে ভাগবত ও টাটাকে।

রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করে, সম্পূর্ণ বিপরীত শিবির ও বিশ্বাসের প্রণব মুখোপাধ্যায়কে নিজেদের অনুষ্ঠানে হাজির করে সঙ্ঘ কর্তারা নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা বৃদ্ধির পরিচয় দিতে চেয়েছেন। এবার তারই আর একটা ধাপ রতন টাটাকে অনুষ্ঠানে নিয়ে আসা। মনে রাখা দরকার, চরম দক্ষিণপন্থী এই হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের সঙ্গে দেশের বেশ কিছু উদ্যোগপতির সংযোগ বেশ প্রকাশ্যই। কিন্তু পারসিক ধর্মাবলম্বী রতন টাটাকে স্বেচ্ছাসেবীদের অভিবাদন গ্রহণ করার দৃশ্য এক অন্য গ্রহণযোগ্যতা তৈরি করতে পারে সঙ্ঘের।