মোবাইল পরিষেবা ক্ষেত্রে জোর ধাক্কা দেওয়ার পরে এবার জিও-র টার্গেট টেলিভিশন। একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিকে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এবার ডিরেক্ট টু হোম বা ডিটিএইচ পরিষেবায় প্রবেশ করতে চলেছে মুকেশ অম্বানির সংস্থা। এছাড়াও ব্রডব্যান্ড পরিষেবার সম্প্রসারণেও পা রাখার প্রস্তুতি নিচ্ছে জিও। জিও-র আগমনে কথা বলা বা মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারের খরচ অনেকটাই সস্তা হয়েছে। ডিটিএইচ পরিষেবায় জিও এলে একই আশা করতে পারেন গ্রাহকরা।

ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, জিও-র ডিটিএইচ পরিষেবায় সাড়ে তিনশোরও বেশি চ্যানেল দেখা যাবে। যার মধ্যে অন্তত পঞ্চাশটি এইচডি চ্যানেল থাকবে। এই ডিটিএইচ পরিষেবার সঙ্গে জিও ক্লাউড যুক্ত থাকবে। যার অর্থ, গ্রাহক চাইলে কোনও অনুষ্ঠান জিও ক্লাউডে সেভ করে রেখে পরে তা দেখতে পারবেন। ফলে পেন ড্রাইভের মতো এক্সটার্নাল ডিভাইস ব্যবহারের প্রয়োজন থাকবে না।

আরও পড়ুন

জিও দিচ্ছে ১৬৮ জিবি ফ্রি ফোর জি ডেটা। ১০ মে-র আগে করতে হবে এই কাজ

আবার বড় সস্তার অফার দিল জিও। শুরু হল নতুন যুদ্ধ, চ্যালেঞ্জ বাকিদের কাছে

ডিটিএইচ পরিষেবা ছাড়াও জিও ব্রডব্যান্ড পরিষেবার ক্ষেত্রেও বিপুল বিনিয়োগ করতে চলেছে বলে এই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, প্রায় ১৮ হাজার কোটি টাকা অতিরিক্ত বিনিয়োগ করে নিজেদের ফাইবার নেটওয়ার্কের সম্প্রসারণ করছে জিও। রিলায়েন্স ফাইবার টু দ্য হোম ব্রডব্যান্ড পরিষেবা ইতিমধ্যেই দেশের বেশ কয়েকটি জায়গায় শুরু করা হয়েছে। আরও কিছু শহরে কিছুদিনের মধ্যেই তা শুরু করা হবে। 

ডিটিএইচ, ব্রডব্যান্ড পরিষেবার সম্প্রসারণের সঙ্গে সঙ্গেই একটি ফিচার ফোন বাজারে আনতে চাইছে জিও। এই ফিচার ফোনটি ফোরজি ভোল্ট-ই প্রযুক্তি সাপোর্ট করবে। এছাড়াও ফোনটি-তে জিও অ্যাপস ব্যবহারের সুযোগও থাকবে। নতুন এই ফিচার ফোন ভর্তুকি দিয়েই বাজারে ছাড়বে জিও। দাম হবে ৯৯৯ থেকে ১৫০০ টাকার মধ্যে।