জিও গিগা ফাইবার ব্রডব্র্যান্ড সার্ভিস চালু করছে রিলায়েন্স আর মেগাবাইট বা এমবিপিএস নয়, এবার ব্রডব্র্যান্ড পরিষেবা পাওয়া যাবে জিবিপিএস বা প্রতি সেকেন্ডে কয়েকশো গিগাবাইটের স্পিডে।

১৫ অগাস্ট থেকেই জিও গিগা ফাইবারের জন্য আবেদন করা যাবে মাইজিও অ্যাপ বা জিও.কম ওয়েবসাইট থেকে।

যেখান থেকে সবচেয়ে বেশি আবেদনপত্র জমা পড়,বে সেখানেই আগে এই পরিষেবা শুরু করবে রিলায়েন্স।

কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভায় চেয়ারম্যান মুকেশ অম্বানী এই পরিষেবার কথা ঘোষণা করে বলেন, ‘‘এই রেজিস্ট্রেশন শুরু করে দিন। আর নিশ্চিত করুন আপনার প্রতিবেশীরাও যাতে এই পরিষেবার জন্য আবেদন করেন। তা হলে আপনার এলাকাই সবার প্রথমে পেতে পারে জিও গিগা ফাইবার পরিষেবা।’’

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

এই ফাইবার সংযোগ ১১০০ শহরে এই ফাইবার ব্রডব্র্যান্ড সার্ভিস চালু করবে জিও। প্রতিটি ঘরে, ছোট ও মাঝারি ব্যবসায় ও বড় কোম্পানির জন্য এই পরিষেবা আনতে চলেছে রিলায়েন্স। 

জিও গিগা ফাইবার-এর মাধ্যমে ঘরে বসে বড় টিভিতে আল্ট্রা এইচডি বিনোদন, ভিডিও কনফারেন্স, ভার্চুয়াল অ্যাসিসট্যান্ট, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি গেমিং, ডিজিটাল শপিং-এর মতো পরিষেবা পাওয়া যাবে। 

এছাড়াও, জিও স্মার্টফোন ব্যবহার করে সিকিউরিটি ক্যামেরা, লাইট জ্বালানো ও বন্ধ করার মতো পরিষেবা পাওয়া যাবে। বাড়ির বাইরে থেকেও স্মার্টফোনে এই কাজগুলি সারা যাবে।

ফিক্সড ব্রডব্র্যান্ডে বিশ্বে ভারতের স্থান ১৩৪ নম্বরে। ইন্টারনেট ডেটার ৮০ শতাংশ বাড়িতেই খরচ করেন গ্রাহকেরা। অপটিক্যাল ফাইবারের উপর তৈরি ফিক্সড লাইন ব্রডব্র্যান্ডই ভবিষ্যৎ বলে দাবি করেন মুকেশ। তিনি ভারতকে ব্রডব্র্যান্ডে পৃথিবীর প্রথম পাঁচটি দেশের মধ্যে নিয়ে আসতে চান বলে দাবি করেন তিনি।

ডিজিটাল পরিকাঠামোর উন্নতির জন্য রিলায়েন্স ২ লাখ ৫০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে।

স্বাধীনতা দিবসের দিন থেকে নয়া ‘ডিজিটাল স্বাধীনতা’র স্বাদ এনে দেওয়ার ঘোষণাই করলেন মুকেশ।