সানিয়া মির্জা কিছু করলেই খবর হন। অল্পতেই তিনি সমালোচিত হন। এমনই বিড়ম্বনা ভারতের টেনিস তারকার। ১৫ অগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবস ছিল। বিরাট কোহলি ক্যান্ডিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেছেন। সানিয়া মির্জাও ইনস্টাগ্রামে ভারতের জাতীয় পতাকা হাতে একটি ছবি পোস্ট করে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

ফেসবুকেও সানিয়া সবাইকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। ইনস্টাগ্রামে ভারতের জাতীয় পতাকা হাতে ছবিটি দেখার পরে এক ইউজার লিখেছেন, ‘‘সানিয়া ও শোয়েব দু’দেশের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতেই পারেন। সানিয়া পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা হাতে তুলে নিন আর শোয়েব ভারতের পতাকা তুলে ধরুন।’’ এর পরেই সেই ইউজার আরও লিখেছেন, ‘‘আমি নিশ্চিত এটা হবে না। তবে আশা করতে দোষ কোথায়!’’

এ তো গেল ইনস্টাগ্রামের পোস্টের কথা। সংশ্লিষ্ট ইউজার ভাল কথাই বলেছেন। দু’দেশের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে সানিয়া ও শোয়েব তো বড় ভূমিকা নিতেই পারেন। আগেও অনেকে এমন কথা বলেছেন। রাজনীতিবিদরাও হয়তো এই কূটনৈতিক পদক্ষেপ করতে পারেন।

কিন্তু ফেসবুকে সানিয়ার শুভেচ্ছাবার্তা পড়ার পরে এক পাকিস্তানি সাংবাদিক একহাত নেন ভারতের টেনিস তারকাকে। সেই সাংবাদিকটি সানিয়াকে কটাক্ষ করে বলেছেন, ‘‘এশিয়ান কোনও মহিলার সঙ্গে বিয়ে না করে বিদেশি মহিলার সঙ্গে বিয়ে করা উচিত। ওয়াসিম আক্রমের স্ত্রী ১৪ অগস্ট পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।’’