নিজের দেশকেই অসম্মান করলেন আফ্রিদি! আপাতত এই প্রশ্নেই সরগরম পাকিস্তান। ওয়াঘার ওপারের রাজনীতিতে নয়া মাত্রা যোগ করলেন তারকা ক্রিকেটার। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছে। যা নিয়েই বিতর্ক তুঙ্গে।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

সেই ভিডিওতে আফ্রিদিকে দেখা যাচ্ছে নস্যি নিতে। প্রথমবার নস্যি নিয়ে ইতি উতি তাকিয়ে ফের একবার নস্যি নীচের ঠোঁটে ঠুসে দিতে দেখা গিয়েছে। প্রতিরক্ষা ও শহিদ দিবসের অনুষ্ঠান ছিল সেনাবাহিনীর হেডকোয়ার্টারে। সেখানেই আমন্ত্রিত ছিলেন তারকা ক্রিকেটার। দর্শকাসনে বসেই তিনি নাকি এমন কাণ্ড ঘটান।

জাতীয় স্তরের গুরুত্বপূর্ণ এমন অনুষ্ঠানে নস্যি নিয়ে কী পরোক্ষে কার্যত দেশকেই অসম্মান করলেন না ক্রিকেটার! প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। নেটিজেনদের একের পর এক প্রশ্নে বিদ্ধ শাহিদ আফ্রিদি। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমেও তুলোধনা করা হতে থাকে তাঁকে। প্রশ্ন তোলা হয়, আফ্রিদির মতো তারকারা দেশের ভাবী প্রজন্মের কাছেই আইডল। তাঁদের কাছে কী বার্তা রাখলেন তিনি?

পরিস্থিতি বেগতিক দেখে শেষমেষ নিজেকে বাঁচাতে সাফাই দিতে বাধ্য হন আফ্রিদি। তিনি এক পাক সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, নস্যি নয়, মৌরি ও লবঙ্গ খাচ্ছিলাম।