দু’বছরের নির্বাসন। তার পরে প্রত্যাবর্তনেই আইপিএল ট্রফি। চেন্নাই সুপার কিংস আপাতত সপ্তম স্বর্গে। ধোনি-ফ্লেমিংয়ের সংসারে এখন বসন্তের হাওয়া। এর মধ্যেই কোচ স্টিফেন ফ্লেমিংয়ের ইঙ্গিত, পরের মরশুমে না-ও রাখা হতে পারে শেন ওয়াটসন, হরভজন সিংহদের মতো বর্ষীয়ান ক্রিকেটারদের।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

ফাইনালে শেন ওয়াটসনের সাইক্লোনে ভর করেই কাপ জিতেছে সিএসকে। ১১৭ রানের বিস্ফোরক ইনিংসে ভর করেই হায়দরাবাদকে হারিয়েছে চেন্নাই। সেই ওয়াটসনকেই সম্ভবত পরের মরশুমে রাখবে না সিএসকে। এমনই ইঙ্গিত দিয়ে বসলেন ধোনিদের কিউয়ি কোচ।

সর্বভারতীয় এক ক্রিকেট প্রচারমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ফ্লেমিং এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘‘এই মরশুমের জন্য আমাদের রণকৌশল ছিল অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের কেনা। সেই স্ট্র্যাটেজি দারুণ ভাবে সফল। ফাইনালেও প্রত্যেকে দুরন্ত পারফরম্যান্স করেছে।’’ এর পরেই ফ্লেমিং বলেন, ‘‘প্রত্যেক মরশুমের আইপিএল-এর স্ট্র্যাটেজি-ই আলাদা। প্রত্যেক দলেরই নতুনভাবে রণকৌশল সাজানো প্রয়োজন। এই মরশুমে অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের নেওয়াটা আমাদের পক্ষে গিয়েছে। তবে পরের মরশুমেও আমাদের যে এমন কৌশল থাকবে, এমনটা মোটেও নয়।’’

এখানেই না থেমে ফ্লেমিং আরও জানিয়েছেন, ‘‘শেন ওয়াটসন ও হরভজন সিংহদের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটাররা আইপিএল-এ দারুণ খেলেছে। তবে পরের আইপিএল-এ স্ট্র্যাটেজি বদলাচ্ছে।’’

সূত্রের খবর, চলতি টুর্নামেন্টে সিএসকে স্কোয়াডের গড় বয়স ছিল ৩৪ বছর। পরের মরশুমে এই গড় বয়সই কমাতে চাইছেন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তারা। সেই নীতিতেই কি বাদ পড়বেন ওয়াটসন, হরভজনরা! ইঙ্গিত হয়তো দিয়ে রাখলেন স্টিফেন ফ্লেমিং।