জল্পেশ মন্দির-সহ উত্তরবঙ্গের একাধিক ধর্মীয় স্থানকে কেন্দ্র করে ‘ধর্মীয় ট্যুরিজম সার্কিট’ গড়ছে রাজ্য পর্যটন দফতর। বুধবার ময়নাগুড়ির জল্পেশ মেলার উদ্বোধন করতে এসে এমনই ঘোষণা করেন রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব। মেলাকে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য আবেদন রাখেন তিনি। মেলার সরকারি স্টলের উদ্বোধনও করেন তিনি।

মেলায় এদিন মহিলাদের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা যায়। মন্দিরের বাইরের মেলাকে শৃঙখলা বজায় রেখেই এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আবেদন করেন জেলা সভাধিপতি নুরজাহান বেগম ও জেলা শাসক রচনা ভগত।

এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

জল্পেশ মন্দির কমিটির সম্পাদক গিরেন্দ্রনাথ দেব জানান, উত্তরবঙ্গের বিখ্যাত শৈবতীর্থ জল্পেশ। এই জল্পেশে প্রতি বছর শিব চতুর্দশীতে লক্ষ লক্ষ পুণ্যার্থী আসেন বাবার মাথায় জল ঢালতে। জলপাইগুড়ি জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এবার জল্পেশে পুলিশ ক্যাম্প করা হয়েছে। বিভিন্ন থানা থেকে পুলিশ কর্মীদের নিয়ে আসা হয়েছে মন্দিরের নিরাপত্তার জন্য।

ময়নাগুড়ির ইন্দিরা মোড়ে একটি পুলিশ অ্যাসিস্ট্যান্ট বুথ তৈরি হয়েছে। ময়নাগুড়ি থানার আইসি, তৌহিদ আনোয়ার জানান, নিরাপত্তার দিক খতিয়ে দেখতে ২০টি সিসিটিভি বসানো হয়েছে জল্পেশ মন্দির ও সংলগ্ন এলাকায়।